Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : ৬ অক্টোবর, ২০১৬ ১৮:০১
স্লিভলেস ব্লাউজ, হাল্কা শাড়ি আর পুজোয় রাতের কলকাতা
অনলাইন ডেস্ক
স্লিভলেস ব্লাউজ, হাল্কা শাড়ি আর পুজোয় রাতের কলকাতা

চারদিকে দুর্গাপূজার ব্যস্ততা আর হৈ হুল্লোড়। নতুন কাপড়, মণ্ডা-মিঠাই, খিচুড়ি, ঢাকের শব্দ, পূজা মণ্ডপ- সব মিলিয়ে চারদিক উৎসবমুখর।

 বাংলাদেশি অভিনেত্রী জয়া আহসান রয়েছেন কলকাতায়। দুর্গাপূজা নিয়ে আনন্দবাজার পত্রিকাকে বলেছেন নানা কথা। পাঠকদের জন্য তা তুলে ধরা হলো:

দুর্গাপুজোয় কোথায় থাকব কলকাতা না বাংলাদেশ— এ নিয়ে প্রতি বছরই আমার নিজের মধ্যে একটা দ্বন্দ্ব চলতে থাকে। এক দিকে, আমার চেনা পুজোর পরিবেশ। তার বিশালতা না দেখলে আপনারা বিশ্বাস করবেন না। আর অন্যদিকে এমন একটা শহর, যেখানকার পুজো দেখবেন বলে দূর-দূরান্ত থেকে মানুষ আসেন। আমার ভালবাসার শহর। কলকাতা।

এখানকার পুজোর অসাধারণ আয়োজন দেখার অভিজ্ঞতা আমার আগেও হয়েছে। তাই সেটা চট করে মিস করতে চাই না। পুজোর কলকাতায় কত মানুষ, কত সাজগোজ আমার দেখতে ভারী ভাল লাগে।

একবার কী হয়েছে জানেন? পুজোর মধ্যে কোনও একটা দিন, কোন দিন ঠিক মনে পড়ছে না। বেরিয়েছিলাম কোনও একটা কাজে। শেষ হতে সন্ধ্যা হয়ে গিয়েছিল। ফেরার সময় কী অবস্থা ভাবতে পারবেন না। কী ভিড় রাস্তায়, কত লোক সেজেগুজে ঠাকুর দেখতে বেরিয়েছে, এত জ্যাম আমার গাড়ি একচুলও নড়ছে না। একই জায়গায় আটকে রয়েছি বহু ক্ষণ। তারপর কী করব, কী করব— ভাবতে ভাবতে মনে হল একটা রিস্ক নিয়ে দেখাই যাক না! নেমে পড়লাম গাড়ি থেকে। হাঁটতে শুরু করলাম। সে দিন পুজোর কলকাতা দেখতে দেখতে অনেক রাতে হেঁটে বাড়ি ফিরেছিলাম। অসাধারণ অভিজ্ঞতা।

বাংলাদেশে থাকলে পুরনো ঢাকার বনানীতে যাই। ওখানে অনেক বড় পুজো হয়। দেখা হয় বন্ধুদের সঙ্গে। প্রচুর গিফটও পাই পুজোতে। ছোট থেকেই জানেন, আমার ধর্ম দুর্গাপুজোয় আনন্দ করার ক্ষেত্রে কোথাও বাধা হয়ে দাঁড়ায়নি।

ফেস্টিভ সিজন মানে সেটা ঈদ হোক বা দুর্গাপুজো, ডায়েট একদম ফলো করি না। ঠাকুরকে লুচি, খিচুড়ি যে ভোগই দেওয়া হোক চেটেপুটে খাই। এ সব খাবার একদম মিস করতে চাই না। আবার পুজো মানেই যে সব সময় শাড়ি পরতে হবে, এটাও মনে করি না। ধরুন ষষ্ঠীতে কুর্তির সঙ্গে ওয়ের্স্টান কিছু পরলাম। সপ্তমীর সকালে সুদিং কালারের হাল্কা কোনও শাড়ি স্লিভলেস ব্লাউজ দিয়ে পরব। হলুদ আমার ফেভারিট কালার। তবে পুজোর দিনে যে কোনও প্যাস্টেল শেডই ভাল মানাবে। আর শাড়ির পাশাপাশি ইন্দো-ওয়ের্স্টানও পরব। আমার পার্সোনাল পছন্দ ওটাই। লোকজন আর সাজগোজ দেখতে দেখতেই কাটবে আমার দুর্গাপুজো।  


বিডি-প্রতিদিন/ ০৬ অক্টোবর, ২০১৬/ আফরোজ

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow