Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : ১২ অক্টোবর, ২০১৬ ১৩:২৫
প্রতি ৭ সেকেন্ডেই ১টি কন্যাশিশুর বিয়ে
অনলাইন ডেস্ক
প্রতি ৭ সেকেন্ডেই ১টি কন্যাশিশুর বিয়ে
প্রতীকী ছবি

বিশ্বে প্রতি সাত সেকেন্ডে ১৫ বছরের কম বয়সী একটি কন্যাশিশুর বিয়ে হয়। আন্তর্জাতিক সংস্থা সেভ দ্য চিলড্রেনের এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানা গেছে। প্রতিবেদনে বলা হয়, ১০ বছর বয়সী কন্যাশিশুদের অনেক বেশি বয়সী পুরুষদের সঙ্গে বিয়ে দেয়া হয়। আফগানিস্তান, ইয়েমেন, ভারত, সোমালিয়াসহ বিভিন্ন দেশে এ ধরনের বিয়ের ঘটনা ঘটে। তবে ভারতে এ হার সবচেয়ে বেশি।

বাল্যবিয়ের ফলে কন্যাশিশুরা শিক্ষা, উন্নয়ন ও শিশু হিসেবে বড় হওয়ার মৌলিক অধিকার থেকে বঞ্চিত হয়। ফলে তাদের জীবন ঘুরপাক খায় নানা রকম সমস্যার আবর্তে। প্রতিবেদনে কন্যাশিশুদের বিয়ের জন্য সংঘাত, দারিদ্র্য ও মানবিক বিপর্যয়কে দায়ী করা হয়েছে।  

সেভ দ্য চিলড্রেনের মুখ্য নির্বাহী হেলি থর্নিং-স্মিডটস বলেন, শিশু বয়সে বিয়ে হওয়ায় মেয়েরা স্কুলে যেতে পারে না। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে তারা পারিবারিক সহিংসতা, যৌন হয়রানি ও ধর্ষণের শিকার হয়। তারা কম বয়সে গর্ভধারণ করে এবং যৌন সংক্রান্ত সংক্রমণ এমনকি এইচআইভি ভাইরাসে আক্রান্ত হয়।  
  
প্রতিবেদনে জানানো হয়, মানবিক বিপর্যয়ের সময়ও মেয়েরাই সবচেয়ে বেশি দুর্ভোগের শিকার হয়। সিয়েরা লিওনে ইবোলা ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়ার সময় দেশটিতে স্কুলপড়ুয়া প্রায় ১৪ হাজার কিশোরী অন্তঃসত্ত্বা ছিল। ওই সময় স্কুলগুলো বন্ধ ঘোষণার অন্যতম কারণ ছিল এসব কিশোরী।

জাতিসংঘের শিশুবিষয়ক সংস্থা ইউনিসেফের তথ্য অনুযায়ী, বাংলাদেশে ১৮ শতাংশ মেয়ের ১৫ বছর বয়সের মধ্যে বিয়ে হয়। ১৮ বছর বয়সের মধ্যে ৫২ শতাংশ মেয়ের বিয়ে হয়। বর্তমানে বিশ্বে ৭০ কোটি মেয়ে বাল্যবিবাহের শিকার। ২০৩০ সালের মধ্যে এ সংখ্যা বেড়ে ৯৫ কোটিতে পৌঁছতে পারে।

 

বিডি প্রতিদিন/১২ অক্টোবর, ২০১৬/ফারজানা

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow