ঢাকা, রবিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮

আজকের পত্রিকা

ফারাক্কা বাঁধ বিহারবাসীর জন্য 'অভিশাপ', খবর এবিপি আনন্দের
অনলাইন ডেস্ক

বাংলাদেশ দেওয়া ভারতের ফারাক্কা বাঁধ বিহারবাসীর কাছে ‘অভিশাপ’ হয়ে দেখা দিয়েছে বলে মনে করছেন দেশটির বিশেষজ্ঞরা। ভারতের ম্যাগসাইসাই পুরস্কার বিজয়ী রাজেন্দ্র সিং, যাকে দেশের ‘ওয়াটারম্যান’ বলে অভিহিত করা হয়, তিনি ফারাক্কা বাঁধ হঠানোর প্রস্তাব দিয়েছেন।

তিনি বলেন, ফারাক্কা বাঁধ হল বিহারের কাছে অশুভ। এটা একটা অভিশাপ, যাকে সরানোর প্রয়োজন। কারণ, যতক্ষণ তা না হচ্ছে, ততক্ষণ এগিয়ে যাওয়া অসম্ভব। খবর এবিপি আনন্দের।

রবিবার একটি আন্তর্জাতিক সেমিনারে অংশগ্রহণ করতে গিয়ে রাজেন্দ্র সিং আরও বলেন, এতদিন ফারাক্কার কারিগরি ও প্রযুক্তিগত দিকগুলি নিয়েই আলোচনা হয়েছে। পাশাপাশি, পরিবেশগত থেকে শুরু করে এর সাংস্কৃতিক, প্রাকৃতিক, আধ্যাত্মিক দিকগুলিও খতিয়ে দেখা দরকার।

আরেক বিশেষজ্ঞ হিমাংশু ঠক্কর জানান, ফারাক্কা বাঁধের কার্যকারিতা বলতে কিছুই নেই। সেচ থেকে শুরু করে বিদ্যুৎ, পানি সরবরাহ—কোন কাজেই আসছে না ফারাক্কা। তার প্রস্তাব, গোটা বিষয়টি (ফরাক্কার প্রয়োজনীয়তা) খতিয়ে দেখার সময় এসেছে।

তিনি যোগ করেন, সাধারণত, প্রত্যেক বাঁধের গুরুত্বের খতিয়ান ২০ বছর অন্তর খতিয়ে দেখা উচিত। কিন্তু, ৪২ বছর হয়ে গেলেও, ফারাক্কা নিয়ে কোন পর্যালোচনা হয়নি। তার দাবি, ফারাক্কা যতদিন থাকবে, ততদিন গঙ্গার গতি থমকে যাবেই। ফলে, বিহারে ভয়াবহ বন্যা হবে।

এদিকে, গঙ্গা পুনঃজীবীকরণ নিয়ে কেন্দ্রের গঠিত উচ্চপর্যায়ের কমিটি প্রস্তাব দিয়েছে, বিহারের বন্যা পরিস্থিতি সামলাতে ফারাক্কা বাঁধ সংলগ্ন জলাধারের চরায় ড্রেজিং করতে।

বিডি-প্রতিদিন/২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭/মাহবুব



এই পাতার আরো খবর