ঢাকা, বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৮

আজকের পত্রিকা

উত্তর আগ্রাবাদে নিত্য জলাবদ্ধতা
ফারুক তাহের, চট্টগ্রাম

চট্টগ্রাম নগরীর গুরুত্বপূর্ণ ওয়ার্ডগুলোর অন্যতম ২৪নং উত্তর আগ্রাবাদ। ঘনবসতিপূর্ণ এই ওয়ার্ডে প্রায় ৪ লাখ লোকের বসবাস। ২১ মহল্লার স্থানীয় বাসিন্দা ছাড়াও এখানে রয়েছে ২০টিরও অধিক আবাসিক ও ত্রিশের বেশি বস্তি এলাকা। এসব বস্তিতে মাদকসেবী ও মাদক ব্যবসায়ীদের উৎপাত বেড়ে চলেছে বলে জানান স্থানীয়রা। বৃহত্তর এই আগ্রাবাদের পানি প্রবাহের খালের নাম নাসির খাল ও মহেশ খাল। কিন্তু এই খালের কোনো কোনো অংশে পলি ও আর্বজনায় ভরাট হয়ে আছে। ভরাট, দখল ও দূষণে চসিকের ১৭টি খালের অন্যতম নাসির খালটি অনেক জায়গায় সরু নালায় পরিণত হয়েছে। ফলে বর্ষায় সামান্য বৃষ্টিতেই জলাবদ্ধতা দেখা দেয় ২৪ নম্বর উত্তর আগ্রাবাদ ওয়ার্ডে। সংস্কারবিহীন থাকায় এলাকার কিছু রাস্তা যান চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। আবার কোথাও রাস্তার উভয় পাশে নালা না থাকায় সামান্য বৃষ্টিতেই হাঁটুপানি জমে যায়। বর্ষায় কাদাপানিতে সীমাহীন দুর্ভোগ পোহাতে হয় স্থানীয় বাসিন্দাদের। স্থানীয়দের অভিযোগ—এই ওয়ার্ডের অনেকগুলো সড়ক এখনো সংস্কারবিহীন, ফুটপাত ভেঙে একাকার। নালা-নর্দমার টাকা যথাযতভাবে ব্যয় না করায় খাল ও নালা ভরাট থাকে প্রায় সময়। ওয়ার্ড কাউন্সিলর নাজমুল হক ডিউক বলেন, ওয়ার্ডের প্রধান সমস্যা জলাবদ্ধতা। তা নিরসনে একনেকে একটি প্রকল্প পাস হয়েছে।

এদিকে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন সূত্রে জানা গেছে, চসিকের পক্ষ থেকে নাসির খালের দখল হওয়া অংশ উচ্ছেদে বিভিন্ন সময় উদ্যোগ নেওয়া হয়েছিল। কিন্তু নানা জটিলতায় তা কার্যকর হয়নি। তবে ওই এলাকার জলাবদ্ধতা নিরসন এবং বিকল্প পথে পানি প্রবাহিত করার জন্য ৪৩ লাখ টাকা ব্যয়ে বাক্স রিং নির্মাণ করা হয়েছে।



এই পাতার আরো খবর