ঢাকা, সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৮

আজকের পত্রিকা

বরিশালে নারীসহ নিহত ২, আটক ১১
রাহাত খান, বরিশাল:

বরিশালের বানারীপাড়া এবং বাকেরগঞ্জে একই দিনে এক নারীসহ ২জন হত্যাকান্ডের শিকার হয়েছেন। দুটি ঘটনায় পুলিশ ১১জনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে। গত শুক্রবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে বানারীপাড়ার নরোত্তমপুর গ্রামের মল্লিক বাড়ির সামনের রাস্তার পাশ থেকে এক যুবতীর লাশ উদ্ধার করা হয়। তার পড়নে ছিলো স্যালোয়ার কামিজ, বোরখা এবং গলায় ছিলো ফাঁসের চিহ্ন। আলমত দেখে এটি পরিকল্পিত হত্যা নিশ্চিত হয়ে ওই রাতেই থানা পুলিশ হতভাগী দিলরুবার স্বামী শামীম হাওলাদার, শশুড় আলম হাওলাদার, শাশুড়ি মনোয়ারা বেগম, বড় বোন শিল্পী, মেঝ ভগ্নিপতি আলামিন এবং দেবর সুমনসহ ৭ জনকে আটক করেছে। 

নিহত দিলরুবা বরিশাল সদর উপজেলার চরকাউয়া গ্রামের মোশারেফ খানের মেয়ে। দুই মাস আগে বানারীপাড়া উপজেলার বেতাল গ্রামের শামীমের সাথে তার বিয়ে হয়। তারা এবং তার মেঝ বোন দম্পত্তি একই উপজেলার ছলিয়াবাকপুর গ্রামে বড় ভগ্নিপতির বাড়ি বেড়াতে যায়। ওই রাতে তারা নরোত্তমপুর গ্রামে স্থানীয় একটি মেলায় যায়। মেলা মাঠ থেকে নিরুদ্দেশ হয় দিলরুবা। পরে রাস্তার পাশ থেকে উদ্ধার হয় তার লাশ। ওই রাতেই বানারীপাড়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) ফারুক খান বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেন, তাকে হত্যা করা হয়েছে এটা নিশ্চিত। আজ দুপুরে মর্গে ময়নাতদন্ত শেষে তার লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। 

জেলা পুলিশ সুপার এসএম আক্তারুজ্জামান জানান, পরিবারিক বিরোধ, প্রেম কিংবা অন্য কোন বিষয় নিয়ে দিলরুবাকে হত্যা করা হতে পারে। পুলিশ সবগুলো বিষয় সামনে রেখে আটককৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ করছে। তদন্তে প্রকৃত অপরাধীদের সনাক্ত করে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। 

অপরদিকে একই দিন বাকেরগঞ্জের খেজুরা ভরপাশা গ্রামে ভাতিজাদের হাতে চাচা খুনের ৪ জনকে আটক করেছে পুলিশ। গত শুক্রবার হত্যাকান্ডের পর ওই রাতেই আটক করা হয় নিহত নিতাই চন্দ্রের (৫০) ৩ ভাতিজা সহ ৪ জনকে। এরা হলো খোকন, সজল, ইন্দ্র ও মাধব চন্দ্র শীল। আটককৃতদের নিহতের স্ত্রী মুকুল রানী শীলের দায়ের করা মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে আজ শনিবার আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে। 

মুকুল রানী জানান, তার ভাসুর গৌরাঙ্গ চন্দ্র শীলের শেষকৃত্তের স্থান নির্ধারন নিয়ে ভাতিজা খোকন, সজল, দেবর ইন্দ্র ও মাধব শীলের সাথে নিতাইয়ের বাক বিতন্ডা হয়। এক পর্যায় তারা উত্তেজিত হয়ে তাকে মারধর করে এবং তার গলা চেপে শ্বাসরোধ করে। এতে সে জ্ঞান হারিয়ে ফেলে। তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপেপ্লক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

বাকেরগঞ্জ থানার ওসি মো. আজিজুর রহমান জানান, গতকাল বরিশাল মর্গে ময়নাতদন্ত শেষে তার লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রীর দায়ের করা মামলায় আটক ৪ জনকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।

বিডি প্রতিদিন/এ মজুমদার

 



এই পাতার আরো খবর