ঢাকা, শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৮

আজকের পত্রিকা

দুর্নীতির প্রতিবাদ, মেম্বারকে পিটিয়ে হাসপাতালে পাঠালেন চেয়ারম্যান!
শেখ রুহুল আমিন, ঝিনাইদহ

দুর্নীতির প্রতিবাদ করায় ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর উপজেলার দোড়া ইউনিয়ন পরিষদের মেম্বার রেজাউল ইসলামকে চেয়ারম্যান কাবিল উদ্দিন পিটিয়ে আহত করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। সোমবার বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে ইউনিয়ন পরিষদের হলরুমে এ ঘটনা ঘটে। পরে তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনায় ওই মেম্বার মঙ্গলবার বিকালে কোটচাঁদপুর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

রেজাউল মেম্বারের লিখিত অভিযোগে জানা গেছে, দীর্ঘদিন ধরে চেয়ারম্যান কাবিল উদ্দিন ক্ষমতার দাপটে ইউনিয়ন পরিষদে বিভিন্ন দুর্নীতি করে আসছেন। এরই জের ধরে সোমবার বিকালে চেয়ারম্যান কাবিল উদ্দিনের কাছে পরিষদের ১% টাকার হিসাব চাওয়া এবং প্যানেল চেয়ারম্যান নিয়ে কথা বলতে যান তিনি। এ সময় চেয়ারম্যান তাকে অকথ্য ভাষায় গালি করে। এক পর্যায়ে তাকে এলোপাতাড়িভাবে পিটিয়ে আহত করে। অন্যান্য মেম্বারগণ ও স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে কোটচাঁদপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ভর্তি করে। পরে ঘটনাটি চেযারম্যান আপোস ও রফার চেষ্টা চালান।

অভিযোগে আরও উল্লেখ করা হয়েছে কাবিন উদ্দিন চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে কাবিখার কাজ নিজের খেয়াল-খুশি মত করে থাকেন। এ নিয়ে তিনি মেম্বারদের সাথে আলোচনা করেন না। একটি টিউবওয়েল দিয়ে পাঁচটির স্বাক্ষর করিয়ে নেন। রিং স্ল্যাব পাঁচটি দিয়ে ১০টির বিল ভাউচার করে। এছাড়া চেয়ারম্যানের নিজের রিং স্ল্যাবের কারখানার ব্যবসা রয়েছে। ট্যাক্স ও ট্রেড লাইসেন্সের টাকা পকেটে ভরেন। প্রভাবশালী হওয়ার কারণে তার বিরুদ্ধে কেউ মুখ খুলতে সাহস পায় না।

এই ব্যাপারে দোঁড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান কাবিল উদ্দিন বিশ্বাস জানান, ভিজিডি কার্ড নিয়ে মেম্বার আত্মীয়করণ করায় আমি তাকে বকাঝকা করেছি। মারধরের কোন ঘটনা ঘটেনি। দুর্নীতির ব্যাপারও তিনি অস্বীকার করেন।   ঘটনাটি নিয়ে কোটচাঁদপুর থানার ওসি বিপ্লব কুমার সাহার সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, চেয়ারম্যান কাবিল উদ্দিনের বিরুদ্ধে একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

বিডি-প্রতিদিন/১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭/মাহবুব

 



এই পাতার আরো খবর