ঢাকা, রবিবার, ১৮ নভেম্বর, ২০১৮

আজকের পত্রিকা

চালকের যাবজ্জীবন
পরিবহন ধর্মঘটে অচল খুলনা বিভাগ
নিজস্ব প্রতিবেদক, যশোর:

আজ ভোর থেকে খুলনা বিভাগের ১০ জেলায় অনির্দিষ্টকালের জন্য পরিবহণ ধর্মঘট শুরু করেছেন পরিবহণ শ্রমিকরা। বাসচালক জামির হোসেনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ দেয়ার প্রতিবাদে তারা এ কর্মসূচি শুরু করেছেন।

শনিবার দুপুরে যশোরে শ্রমিক ভবনে বাংলাদেশ পরিবহণ সংস্থা শ্রমিক ফেডারেশনের এক জরুরি সভা থেকে এই ধর্মঘট কর্মসূচির ঘোষণা দেওয়া হয়। এদিকে হঠাৎ করে ধর্মঘট কর্মসূচি ঘোষণার কারণে আজ সকালে যশোর কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনালে অনেক যাত্রী ভোগান্তির শিকার হন। তারা এ কর্মসূচির কথা জানতে না পারায় বিভিন্ন স্থানে যাওয়ার জন্য টার্মিনালে জড়ো হয়েছিলেন। বাধ্য হয়ে তারা ছোট ছোট যানবাহণে তারা গন্তব্যে রওনা হন। টার্মিনালে ভোগান্তির শিকার যাত্রীরা বলেছেন, আদালতের রায়ের বিরুদ্ধে এ ধরণের ধর্মঘট ডাকার কোন যৌক্তিকতা থাকতে পারে না। তাই অবিলম্বে এই ধর্মঘট প্রত্যাহার করা উচিৎ। অন্যদিকে পরিবহণ শ্রমিক নেতারা বলছেন, যে ধারায় বাসচালক জামির হোসেনের বিচার হওয়ার কথা, সে ধারায় বিচার না করে অন্য ধারায় বিচার করে তাকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। মাথায় যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ নিয়ে আমরা গাড়ি চালাবো না।

উল্লেখ্য, মানিকগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত সাংবাদিক মিশুক মুনীর ও চলচ্চিত্রকার তারেক মাসুদ নিহত হওয়ার ঘটনায় সম্প্রতি বাসচালক (চুয়াডাঙ্গা ডিলাক্স) জামির হোসেনকে আদালত যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ দেন। এর প্রেক্ষিতে গত কয়েকদিন ধরেই চুয়াডাঙ্গায় পরিবহণ ধর্মঘট চলছিল। এ অবস্থায় গতকাল যশোরে পরিবহণ সংস্থা শ্রমিক ফেডারেশনের খুলনা বিভাগীয় আঞ্চলিক কমিটির ৩৪টি শ্রমিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ বৈঠকে বসেন। এ বৈঠক থেকেই খুলনা বিভাগের ১০ জেলায় অনির্দিষ্টকালের জন্য পরিবহণ ধর্মঘটের ডাক দেওয়া হয়।

বিডি প্রতিদিন/সালাহ উদ্দীন


এই পাতার আরো খবর