ঢাকা, রবিবার, ১৮ নভেম্বর, ২০১৮

আজকের পত্রিকা

মাগুরায় শিক্ষকের প্রহারে ছাত্র হাসপাতালে
মাগুরা প্রতিনিধি:

প্রশ্নের যথাযথ উত্তর দেয়ার সময় উচ্চারণগত ত্রুটিসহ তোতলামি করায় ক্ষুব্ধ হয়ে মাগুরা সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের এক শিক্ষক ক্ষুব্ধ হয়ে নবম শ্রেণীর অসুস্থ এক ছাত্রকে নির্দয়ভাবে পিটিয়ে আহত করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। ছাত্রটি বর্তমানে মাগুরা সদর হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে।

অসুস্থ ছাত্রের বাবা মাগুরা শহরের আদর্শ পাড়ার বাসিন্দা মুন্সী কায়েমুজ্জামান জানান, তার ছেলে দীর্ঘদিন ধরে টিস্যুজনিত দুর্বলতায় আক্রান্ত। এ কারণে তাকে নিয়মিত ফিজিও থেরাপি দিতে হয়। সঙ্গত কারণে আমি এ বছরের জুলাইয়ে লিখিত দরখাস্তের মাধ্যমে আমার সন্তানকে কোন কারণেই মারপিট করা থেকে বিরত থাকার আবেদন জানিয়েলিছাম। কিন্তু মঙ্গলবার ওই স্কুলের শিক্ষক মৃত্যুঞ্জয় চৌধুরী তার প্রশ্নের যথাযথ জবাব দিতে না পারায় আমার ছেলেকে নির্দয়ভাবে মারপিট করেন। ছেলে মারপিটের বিষয়টি আমাদের কাছে গোপন রাখে। কিন্তু রাতে সে অসুস্থ হয়ে পড়লে আমরা বিষয়টি বুঝতে পেরে দ্রুত মাগুরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করি। বর্তমানে সে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

মাগুরা সদর হাসপাতালে ভর্তি ছাত্র যায়েদ বিন জামান জানায়, আমি স্যারের মারের হাত থেকে বাঁচার জন্যে পা জড়িয়ে ধরলেও তিনি আরো মারতে থাকে। 

শিক্ষক মৃত্যুঞ্জয় চৌধুরী জানান, ওই ছাত্রের কথাবার্তা আমার কাছে ব্যাঙ্গার্তক বলে মনে হয়েছিল। একারণে তাকে শ্বাসন করেছি। তবে সে যে গুরুত্বর অসুস্থ তা আমার জানা ছিল না এ কারণে আমি দুঃখিত। আমি তাকে হাসপাতালে দেখে এসেছি।  

বিডি প্রতিদিন/১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮/হিমেল



এই পাতার আরো খবর