ঢাকা, বুধবার, ১৪ নভেম্বর, ২০১৮

আজকের পত্রিকা

পরকীয়ায় বাধা দেওয়ায় সাতক্ষীরায় স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগ
সাতক্ষীরা প্রতিনিধি :
প্রতীকী ছবি

পরকীয়া প্রেমে বাধা দেওয়ায় স্ত্রীকে শ্বাসরোধে হত্যার পর লাশ রান্না ঘরের আড়ার সঙ্গে ঝুঁলিয়ে দিয়ে আত্মহত্যার প্রচারণা চালানোর অভিযোগ উঠেছে স্বামীর বিরুদ্ধে। মঙ্গলবার রাতে পুলিশ সাতক্ষীরার আশাশুনি উপজেলার জেলপাতুয়া গ্রাম থেকে ওই নারীর লাশ উদ্ধার করেছে। 

নিহত গৃহবধূর নাম দীপালী মন্ডল। সে আশাশুনি উপজেলার জেলপাতুয়া গ্রামের মনোজিৎ কুমার মন্ডলের স্ত্রী ও একই উপজেলার বাকড়া গ্রামের নির্মল সরকারের মেয়ে।

মৃতের বাবা নির্মল সরকার জানান, আশাশুনি উপজেলার জেলপাতুয়া গ্রামের গোয়ালডাঙা গ্রামের কার্তিক মন্ডলের ছেলে মনোজিৎ মন্ডলের সঙ্গে তার মেয়ে মিতালী সরকারের ছয় বছর আগে বিয়ে হয়। এক বছর আগে গোয়ালডাঙা গ্রামের তপন মন্ডলের মেয়ে মিতালী মন্ডলের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এনিয়ে প্রতিবাদ করায় দীপালীকে প্রায়ই মারপিট করতো মনোজিৎ ও তার মা শেফালী। এক পর্যায়ে মঙ্গলবার সকালে তাকে শাশুড়ি ও জামাতা মিলে নির্যাতন চালিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর লাশের গলায় তোয়ালে জড়িয়ে রান্না ঘরের আড়ার সঙ্গে ঝুঁলিয়ে দেয়। 

আশাশুনি থানার উপপরির্শক মঞ্জুরুল হাসান জানান, সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে লাশের ময়নাতদন্ত শেষে থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। 

বিডি-প্রতিদিন/১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৮/মাহবুব



এই পাতার আরো খবর