ঢাকা, রবিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯

আজকের পত্রিকা

আনন্দবাজারকে তন্নিষ্ঠা চট্টোপাধ্যায়
'আমার পুরুষ বন্ধুরাও বলেছে, পর্নোগ্রাফিতে ডিজায়ারটাই মরে যায়'
অনলাইন ডেস্ক

তন্নিষ্ঠা চট্টোপাধ্যায়। ব্রিটিশ, ফরাসি, আমেরিকান, হিন্দি, মরাঠি, বাংলা সব ছবিতেই তার অভিনয় চমকে দেওয়ার মতো। কেউ তাকে বলেন স্বাধীনচেতা! কেউ ‘ফেমিনিস্ট’। কারও মত, বড্ড খোলামেলা! ভারতের আনন্দবাজার পত্রিকার সঙ্গে বিভিন্ন বিষয়ে খোলামেলা কথা বলেছেন এ অভিনেত্রী।

‘লায়ন’-এর কথা উঠতেই অভিনেত্রী বলেন, ‘‘লায়নের শ্যুটে শেরুর সঙ্গে কাজ করা একটা বিশাল অভিজ্ঞতা। ভাবুন তো, চার-পাঁচ বছরের একটা ছেলে যে ইংরেজি পর্যন্ত জানত না! সে সবটা শিখেছে। অভিনয় করেছে।’’

খানিক আফসোস নিকোল কিডম্যানের সঙ্গে স্ক্রিন শেয়ার করা হল না বলে। কিন্তু লায়ন-এর পরিচালক গর্থ ডেভিস তার জন্য যে চরিত্র লিখেছিলেন সে রকম চরিত্র আগে কখনও করেননি তন্নিষ্ঠা। লায়ন-এ অভিনয় করে এতটাই ভাল লেগেছে তার। ইচ্ছে ছিল কমেডি ছবিতে কাজ করার। খুব শিগগিরই আসছে তার ‘ফেসিয়াল পেডিকিওর অ্যন্ড মাইন্ড মাসালা’।

বরাবরই অন্য ধারার চরিত্র করে এসেছেন তন্নিষ্ঠা। এখন যেমন অভিনয় করছেন এ দেশের প্রথম মহিলা ডাক্তার ‘রাখমবাঈ’-এর চরিত্রে। কুড়ি থেকে নব্বই-এর ‘রাখমবাঈ’-এর লুক আনতে এখন রীতিমতো পরিশ্রম করছেন তিনি। এক সাহসী নারীর বায়োপিক নিয়ে কাজ করলেও মনে করেন, সমাজের কোথাও কিছু বদল হয়নি।

তন্নিষ্ঠা বলেন, ‘‘আমাদের সমাজ আজও অপরিণত। কেবলই পাশ্চাত্যকে নকল করছে সবাই। অনুসরণ নেই! অনুকরণ! আমার ‘চৌরঙ্গা’ ছবির অন্তরঙ্গ দৃশ্য নিয়ে আজও সেন্সর কাঁচি চালাল!’’ গণতান্ত্রিক কাঠামোয় কোনও সেন্সরশিপ থাকা উচিত বলে তিনি মনে করেন না।

'পারচড' ছবিতে দুর্দান্ত সাহসি চরিত্রে অভিনয় করেছেন তন্নিষ্ঠা। নগ্নতা ও পর্ন নিয়ে তিনি বলেন, ‘‘মেয়েরা আজও পণ্য। এই পর্ন কালচার একজন মহিলাকেই পণ্য করে। অথচ এই নিয়ে কী আদিখ্যেতা! আমি পর্নোগ্রাফি দেখি না। কারও দেখা নিয়েও আমার কিছু বলার নেই। তবে আমার পুরুষ বন্ধুরাও বলেছে পর্নোগ্রাফিতে ডিজায়ারটাই মরে যায়!’’

বিডি-প্রতিদিন/এস আহমেদ



এই পাতার আরো খবর