ঢাকা, রবিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮

আজকের পত্রিকা

আ-মরি বাংলা ভাষা
প্রমিত ভাষা ব্যবহারে নীতিমালা হতে পারে
হাবীবুল্লাহ সিরাজী

আমাদের মাতৃভাষা বাংলায় পৃথিবীর প্রায় ৩০ কোটি মানুষ কথা বলে। আর বাংলাকে রাষ্ট্রভাষা করার জন্য আমাদের ছাত্র-জনতা রক্ত দিয়েছিল। সালাম, বরকত, জব্বার, সফিউর প্রমুখের রক্তে অর্জিত আমাদের রাষ্ট্রভাষা। এ  ভাষাসংগ্রামের জন্য বিশ্বের বুকে আমরা অনন্য গৌরবের অধিকারী। ১৯৯৯ সালে আমাদের ভাষা দিবস ২১ ফেব্রুয়ারিকে ইউনেস্কো আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ঘোষণা করেছে। পৃথিবীর সব দেশ ২১ ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন করে। কিন্তু দুঃখের সঙ্গে বলছি, আমাদের দেশে মাতৃভাষার প্রমিত ব্যবহার নিয়ে নানা সময় প্রশ্ন ওঠে। দেশের রেডিও, টেলিভিশনে ভাষার যথেচ্ছ ব্যবহার দেখা যায়। পাকিস্তান আমলে পিআইএ’র এয়ার হোস্টেজরা ইংরেজি-মিশ্রিত বাংলা বলার চেষ্টা করতেন। ঠিক একইভাবে এখন দেশের বেসরকারি রেডিওগুলোও ওরকম কথা বলে। তাদের যেন কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই। বেসরকারি টেলিভিশনের নাটক ও অন্যান্য অনুষ্ঠান এমনকি সিনেমায় বাংলা ভাষার শুদ্ধতা রক্ষা করা হচ্ছে না। বাংলাদেশ বেতার, বাংলাদেশ টেলিভিশন মোটামুটি একটা শৃঙ্খলা মেনে চলে। আমি মনে করি, তথ্য মন্ত্রণালয় ভাষার প্রমিত ব্যবহারের ক্ষেত্রে একটি নীতিমালা প্রণয়ন করতে পারে। সরকারি ও বেসরকারি সব গণমাধ্যম সে নীতিমালা অনুসরণ করবে। সরকারি পর্যায়ে নীতিমালা মানতে বাধ্য করাতে হবে। আমরা সরকারি অফিসে আন্তমন্ত্রণালয়ের চিঠিপত্রেও ইংরেজি ভাষার ব্যবহার হতে দেখি। আমি মনে করি, কেবল বিদেশে রাষ্ট্রাচারের ক্ষেত্রে বাংলা ভাষার পাশাপাশি ইংরেজিতে চিঠিপত্র লেখা যেতে পারে। রাস্তায় বিভিন্ন সাইনবোর্ডে বাংলা ভাষায় প্রচুর অশুদ্ধ ও ভুল বানানে স্লোগান লেখা দেখি। এর শুদ্ধতা বজায় রাখার জন্য সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানগুলোকে অনুরোধ জানাই। ভাষাপ্রেমের মধ্য দিয়ে দেশপ্রেম প্রকাশ পায়। লেখক : কবি।



এই পাতার আরো খবর