ঢাকা, শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮

আজকের পত্রিকা

ভোটে সব দলকে চান সিইসি
নিজস্ব প্রতিবেদক ও সাভার প্রতিনিধি
কে এম নূরুল হুদা

সব দলকে নিয়েই ভোট করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন নতুন প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নূরুল হুদা। তিনি গতকাল চার নির্বাচন কমিশনারকে নিয়ে ইসি সচিবালয়ের সচিব ও কর্মকর্তাদের সঙ্গে পরিচিতিমূলক প্রথম বৈঠক এবং সাভারের জাতীয় স্মৃতিসৌধে একাত্তরের বীর শহীদদের শ্রদ্ধা প্রদর্শন শেষে সাংবাদিকদের কাছে এ প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

গতকাল সকালে নূরুল হুদার নেতৃত্বাধীন কমিশন সাভারে জাতীয় স্মৃতিসৌধে ফুল দেওয়ার পর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে যান। সেখানে তারা বৈঠকে মিলিত হন। এ সময় নূরুল হুদা জানান, পূর্বসূরিদের ব্যর্থতা কাটিয়ে আগামী সংসদ নির্বাচনে সব রাজনৈতিক দলকে আনার লক্ষ্য তিনি ঠিক করেছেন।

ইসি কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, বৈঠকে নূরুল হুদা নির্বাচনে সব দলের অংশগ্রহণের ওপর জোর দেন। কর্মকর্তাদের আলোচনার সূত্র ধরে নতুন সিইসি বলেন, ‘এই বাংলাদেশ কতগুলো অত্যন্ত সফল নির্বাচন উপহার দিয়েছে, আর যে নির্বাচনগুলো বিতর্কিত ছিল, তা কেন বিতর্কিত ছিল—তা বিশ্লেষণে আমি যাব না। একটা কথাই বলতে পারি, আপনারা অনেকেই বলেছেন যে ইনক্লুসিভ নির্বাচন ছিল না বলেই বিতর্কিত ছিল।’ কর্মকর্তাদের কাছে নিজের মনোভাব তুলে ধরে তিনি বলেন, ‘নির্বাচন যদি প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক না হয়; যদি সব দলের অংশগ্রহণ না থাকে, সেক্ষেত্রে নির্বাচন বিতর্কিত হবেই। সুতরাং আমরা আশা করব, সব দল নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে।’ তিনি বলেন, ‘আমরা যারা সিইসি ও নির্বাচন কমিশনার হিসেবে যোগদান করেছি, শপথ নিয়েছি, আমাদের একটাই কথা— দলমত নির্বিশেষে সব কিছুর ঊর্ধ্বে থেকে নিরপেক্ষভাবে দায়িত্ব পালন করব।’

সাভারে শ্রদ্ধার্ঘ্য : সকাল ১০টায় সাভারের জাতীয় স্মৃতিসৌধে প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নূরুল হুদার নেতৃত্বে নতুন নির্বাচন কমিশন বীর শহীদদের শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। শেষে প্রধান নির্বাচন কমিশনার জাতীয় স্মৃতিসৌধের পরিদর্শন বইতে স্বাক্ষর করেন। সকাল সাড়ে ১০টার দিকে তারা স্মৃতিসৌধ প্রাঙ্গণ ত্যাগ করেন। এর একপর্যায়ে কে এম নূরুল হুদা সাংবাদিকদের জানান, তারা তাদের দায়িত্বকে চ্যালেঞ্জ হিসেবে দেখছেন। সিইসি তার নিয়োগ নিয়ে বিএনপির প্রতিক্রিয়ার জবাবে বলেন, ‘তারা কেন আর কীভাবে এসব মন্তব্য করেন? এটা তাদের ব্যাপার।’



এই পাতার আরো খবর