ঢাকা, মঙ্গলবার, ২০ নভেম্বর, ২০১৮

আজকের পত্রিকা

দেড়শ' টাকার জন্য সহপাঠীকে খুন!
অনলাইন ডেস্ক
প্রতীকী ছবি

ভারতের পশ্চিমবঙ্গে মাত্র ১৫০ টাকা নিয়ে বিরোধের জেরে নবম শ্রেণির এক ছাত্রকে খুন করে মাটিতে পুঁতে রাখে তারই দুই বন্ধু! তাদের একজন আবার নিহতের সহপাঠী! গত শনিবার রাতে খুনি দুই কিশোরকে গ্রেফতার করেছে দেশটির পুলিশ। গ্রেফতারকৃতরা হলো- নবম শ্রেণির ছাত্র অমিত রায় এবং শুভ দাস। 

জানা যায়, ঘটনার পর দেশটির পুলিশের কাছে দুই খুনি স্বীকার করেছে, কথা কাটাকাটির একপর্যায় মদের বোতল দিয়ে মাথায় সজোরে আঘাতের পর দেবনাথ ভৌমিককে (১৫) শ্বাসরোধ করে খুন করা হয়েছে। এদিকে না জানিয়ে ওই দুজনকে গ্রেফতারের প্রতিবাদে কৃষ্ণনগরের রোড স্টেশনে অবরোধ করে তাদের পরিবারের লোকজন।

দেশটির পুলিশ জানায়, কৃষ্ণনগরের দেবনাথ হাইস্কুলে নবম শ্রেণিতে পড়ত দেবনাথ। গত তিন দিন ধরেই তার খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না। তদন্তে পুলিশ জানতে পারে দুই বন্ধুর সঙ্গেই সর্বশেষ তাকে ঘোরাফেরা করতে দেখা গিয়েছিল। এরপর থেকেই তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদ করে আসছে পুলিশ। কিন্তু প্রতিবারেই তারা কিছু জানে না বলে বিষয়টি এড়িয়ে যায়। শনিবার রোড স্টেশনের একটি পুকুরের পাশের ঝোঁপ থেকে ওই ছাত্রের সাইকেল উদ্ধার করে পুলিশ। ওই দিন সন্ধ্যায় দু'জনকে থানায় তুলে নিয়ে আসা হয়। সন্ধ্যা থেকে টানা জেরার পর রাত ২টা নাগাদ তারা খুনের কথা স্বীকার করে। পুলিশ আরো জানায়, দেবনাথ ওই দুই বন্ধুর কাছে ১৫০ টাকা পেত। বেশ কিছু দিন ধরেই এ নিয়ে তাদের মধ্যে ঝামেলা চলছিল। ঘটনার দিন মদ খাবে বলে ওই ঝোঁপে গিয়েছিল তিন বন্ধু। সেখানে ফের বাকবিতণ্ডা শুরু হলে মদের বোতল দিয়ে দেবনাথের মাথায় সজোরে আঘাত করা হয়। এরপর মৃত্যু নিশ্চিত করতে শ্বাসরোধ করে খুন করে সেখানেই তাকে পুঁতে দেয় তারা। অবশ্য এজন্য আগে থেকেই সেখানে গর্ত করে রাখা হয়েছিল।

এদিকে ওই দুজনকে গ্রেফতারের খবর জানাজানি হতেই থানার সামনে ভিড় জমতে শুরু করে। রবিবার সকাল থেকে রোড স্টেশন অবরোধ করে তাদের পরিবারের লোকজন। সূত্র: আনন্দবাজার।

বিডি প্রতিদিন/এ মজুমদার



এই পাতার আরো খবর