ঢাকা, রবিবার, ১৮ নভেম্বর, ২০১৮

আজকের পত্রিকা

ঠাকুরগাঁওয়ে জেলা ইজতেমা শুরু
ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি:

ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলা নারগুন কৃষ্টপুর ইক্ষু খামার ময়দানে ৩ দিনব্যাপী জেলা ইজতেমা শুরু হয়েছে। বৃহস্পতিবার ফজরের নামাজের পর মাওলানা আব্দুল হামিদ মাসুমে’র বয়ানের মধ্য দিয়ে শুরু হয় ইজতেমার আনুষ্ঠানিকতা।

জেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে তবলীগ জামাতের প্রায় ৬০ হাজার মুসল্লি ইজতেমা ময়দানে যোগ দিয়েছেন। ভারত থেকে ১০ সদস্যের একটি মুসল্লি দল যোগ দিয়েছেন এতে।

জেলা ইজতেমার জন্য কৃষ্টপুর ইক্ষু খামার ময়দানে নির্মাণ করা হয়েছে প্যান্ডেল। বুধবার বিকেল থেকেই জামাতবদ্ধ মুসল্লিরা ইজতেমা মাঠে আসতে শুরু করেন। 

এ জামাতের মুসল্লি আবুল হোসেন জানান, বাদ ফজর থেকে ইজতেমার আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়েছে। আগত মুসল্লিরা তাবলীগ জামাতের শীর্ষ আলেমদের বয়ান শুনছেন।

বিশ্ব ইজতেমার মুরব্বি শহিদুল হক জানান, বিশ্ব ইজতেমায় ক্রমাগত মুসল্লি বাড়তে থাকায় টঙ্গীর বিশ্ব ইজতেমা ময়দানে স্থান সংকুলান হচ্ছিল না। এ জন্য গেল বিশ্ব ইজতেমা থেকেই দুই ধাপে ৩২ জেলার মুসল্লিদের নিয়ে বিশ্ব ইজতেমা অনুষ্ঠিত হয়। মুরব্বিদের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী বাকি ৩২ জেলার মুসল্লিরা (যে সব জেলার মুসল্লিরা গত বিশ্ব ইজতেমায় যোগ দেননি ) নিজ নিজ জেলায় অনুষ্ঠিত ইজতেমায় অংশ নেবেন। সে অনুযায়ী বৃহস্পতিবার থেকে ঠাকুরগাঁও জেলার ইজতেমা শুরু হয়েছে।

ইজতেমা কমিটি সূত্রে জানা গেছে, জেলার বিভিন্ন উপজেলার সাথীরা পর্যায়ক্রমে ইজতেমা মাঠের কাজ সম্পন্ন করেছেন। ইজতেমা মাঠে বিদ্যুৎ, পানি, স্যানিটেশনের পর্যাপ্ত ব্যবস্থা করা হয়েছে। মেডিক্যাল টিম, ফায়ার সার্ভিস ও অ্যাম্বুলেন্স রাখা হয়েছে। ইজতেমা মাঠে সার্বক্ষণিক একটি মেডিক্যাল টিম দায়িত্ব পালন করবেন বলে জানিয়েছেন সিভিল সার্জন ডা. আবু মো. খায়রুল কবির।

ঠাকুরগাওয়ের পুলিশ সুপার ফারহাত আহম্মেদ জানান, ইজতেমায় আশা মুসল্লিদের নিরাপত্তার বিষয়ে সর্বদা সজাগ রয়েছে প্রশাসন। ওয়াচ টাওয়ার বসিয়ে ইজতেমা ময়দানে দৃষ্টি রাখা হয়েছে। সম্পূর্ণ এলাকা সিসি ক্যামেরার আওতায় রয়েছে। সাদা পোশাকধারিসহ সকল পয়েন্টে পুলিশ মোতায়ন করা আছে।

 

বিডি প্রতিদিন/২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৭/হিমেল



এই পাতার আরো খবর