ঢাকা, রবিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮

আজকের পত্রিকা

বুদ্ধিমত্তার ক্ষেত্রে এগিয়ে বাড়ির প্রথম সন্তান
অনলাইন ডেস্ক

একই ঘর, একই পরিবার ও সেই সঙ্গে একই পারিপার্শ্বিক পরিস্থিতির ভেতরে থেকেও মানুষ বড় হয় ভিন্ন মতাদর্শ নিয়ে। তাই বুদ্ধিমত্তা ও সাফল্যের হিসাবে কেউ এগিয়ে থাকবে আর কেউ পিছিয়ে থাকবে এটাই স্বাভাবিক। তবে সম্প্রতি স্কটল্যান্ডের এডিনবরা বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা জানালেন, এই এগিয়ে থাকার অধিকাংশ ক্ষেত্রেই বাড়ির প্রথম সন্তান থাকে সামনের সারিতে।

গবেষকরা বেশ কয়েকমাস ধরেই ১৪ কিংবা তার চেয়ে কম বয়সের কিশোর-কিশোরীদের শারীরিক ও মানসিক অগ্রগতির ওপর নজর রাখেন। সেই সঙ্গে তারা নজর রাখেন তাদের বাড়ি ও পারিপার্শ্বিক পরিস্থিতির উপরও। গবেষকদের মতে, একই পরিবেশে বড় হয় উঠলেও ভাইবোনেদের ব্যবহারের মধ্যে পার্থক্য ধরা পড়েছে। শুধু তাই নয় ব্যবহারের পার্থক্যের পাশাপাশি তাদের শিক্ষা ও বুদ্ধিমত্তার মানও আলাদা।   গবেষনায় ডেখা যায়, বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই বাড়ির প্রথম সন্তান অনেক বেশি বুদ্ধিদীপ্ত হয়ে থাকে।। এর কারণ হিসেবে বিজ্ঞানীদের অনুমান, প্রথম সন্তান বাবা-মার সঙ্গে অনেকটা সময় একা কাটাতে পারে। তখন সমস্ত গুরুত্ব একান্ত তারই থাকে। কিন্তু পরিবারে দ্বিতীয় কিংবা তৃতীয় সন্তান এসে গেলেই সেই গুরুত্ব ভাগ হয়ে যায়।   এছাড়া, ভাই কিংবা বোন পরিবারে এসে গেলে প্রথম সন্তানেরও কিছু মানসিক পরিবর্তন হয়। তাদের মধ্যে দায়িত্ববোধ জন্মায়। সেই দায়িত্ববোধ থেকেই তারা যেমন সাবলম্বী হতে শেখে। সেই কারণেই অনেক তাড়াতাড়ি পরিণত হয়ে ওঠে তারা। 

 

বিডি-প্রতিদিন/ ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭/ আব্দুল্লাহ সিফাত-৮



এই পাতার আরো খবর