ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮

আজকের পত্রিকা

সংসদে প্রধানমন্ত্রী
বিমানের দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তা-কর্মচারী চিহ্নিত হয়েছে
নিজস্ব প্রতিবেদক
ফাইল ছবি

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, দুর্নীতির বিরুদ্ধে সরকারের অবস্থান স্পষ্ট এবং তা হলো জিরো টলারেন্স নীতি অবলম্বন করছে। সরকারের অন্যতম লক্ষ্য হচ্ছে দেশের প্রতিটি প্রতিষ্ঠানকে দুর্নীতিমুক্ত করা। বিমানকে দুর্নীতিমুক্ত করার লক্ষে সরকার বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। এরমধ্যে রয়েছে বিমানের দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তা/কর্মচারীদের চিহ্নিত করে তাদের বিরুদ্ধে প্রশাসনিক/বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণ, বিমানে অটোমেশন সিস্টেম চালুর মাধ্যমে দুর্নীতির সুযোগ হ্রাস করা, বিমানের কার্যক্রমে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে নজরদারি বৃদ্ধি, উচ্চ ক্ষমতা সম্পন্ন দু'টি টাস্ক ফোর্স গঠন, সংসদীয় স্থায়ী কমিটির মাধ্যমে বিমানের কার্যক্রম পরিবীক্ষণের পাশাপাশি জাতীয়ভাবে দুর্নীতি প্রতিরোধ করার লক্ষে সরকারের জাতীয় শুদ্ধাচার কৌশল বিমানেও বাস্তবায়ন প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে।

তিনি বলেন, সরকারের লক্ষ্য ও পরিকল্পনা হচ্ছে বিমানকে দুর্নীতিমুক্ত একটি আধুনিক ও সেবাধর্মী প্রতিষ্ঠান হিসেবে গড়ে তোলা।

বুধবার জাতীয় সংসদের চর্তুদশ ও শীতকালীন অধিবেশনে গোলাম দস্তগীর গাজীর (নারায়ণগঞ্জ-১) এক লিখিত প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী এসব তথ্য জানান।

সরকারদলীয় এমপি এম আবদুল লতিফের প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিশ্বে তৈরি পোশাক রপ্তানিতে শুল্কমুক্ত ও কোটামুক্ত প্রবেশাধিকার বিস্তৃত করার প্রচেষ্টা অব্যাহত রেখেছে সরকার। রপ্তানিবান্ধব নীতি ও সফল বাণিজ্যিক অর্থনীতির কারণে বিভিন্ন দেশ বাংলাদেশকে শুল্কমুক্ত, কোটামুক্ত এ প্রবেশাধিকার দিচ্ছে। বর্তমানে ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত দেশ, কানাডা, অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড, জাপান, সুইজারল্যান্ড, নরওয়ে, চীন, ভারত প্রভৃতি দেশ তৈরি পোশাক রপ্তানিতে বাংলাদেশকে শুল্কমুক্ত সুবিধা দিচ্ছে। বিশ্বব্যাপী তৈরি পোশাকের বাজার সম্প্রসারণের লক্ষ্যে প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে এবং সম্ভাবনাময় দেশসমূহে বিপণন মিশন প্রেরণ এবং দেশে-বিদেশে আর্ন্তজাতিক মেলার আয়োজনের অংশগ্রহণ অব্যাহত রাখা হচ্ছে।

বিডি-প্রতিদিন/এস আহমেদ



এই পাতার আরো খবর