Bangladesh Pratidin

ফোকাস

  • ২ জুন থেকে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু
  • রোহিঙ্গা ক্যাম্পে বন্য হাতির আক্রমণে ১০ মাসে নিহত ১৩
  • সাতক্ষীরায় যুবলীগ-শ্রমিকদের মধ্যে সংঘর্ষ, আহত ২
  • তাসফিয়া হত্যায় 'তৃতীয় পক্ষের' ইন্ধন নিয়ে সন্দেহ পরিবারের
  • বান্দরবানে পাহাড় ধসে নারীসহ ৫ শ্রমিক নিহত
  • সাভারে কাউন্সিলরের লোকজনের সাথে ছাত্রলীগের সংর্ঘষ-গুলি, আহত ২০
  • কেরালায় নিপা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ৯ জনের মৃত্যু
  • নাজিব পরাজয় মেনে নিতে চাননি: আনোয়ার ইব্রাহিম
  • রোহিঙ্গা শিবির পরিদর্শনে প্রিয়াঙ্কা চোপড়া
  • মাদকবিরোধী অভিযান; রাতে ৭ জেলায় 'বন্দুকযুদ্ধে' নিহত ৯
প্রকাশ : বুধবার, ১৫ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০ টা প্রিন্ট ভার্সন আপলোড : ১৫ মার্চ, ২০১৭ ০০:০২
বেদনাকিশোর
মহাদেব সাহা
বেদনাকিশোর

অনুতপ্ত হতে হতে আমি দগ্ধ অঙ্গার হয়ে গেলাম, আর কতো?

সেই যে একদিন কেমন আকাশ ভেঙে বৃষ্টি নেমেছে,

কেন সেই থেকে আমি শালপাতার মতোন কেঁদে কেঁদে বুক ভাসাই;

 

কখন বৃষ্টির দিনে গ্রামোফোন শুনতে আসা লাজুক মেয়েটি

হাতে গুঁজে দিয়েছিলো একখানি খাম,

বৃষ্টিভেজা গাছের মতোন এতো নুয়ে পড়েছিলো কাছে,

হঠাৎ তখনই যেন সব খান খান হয়ে ভেঙে পড়ে;

আর কিছু মনে নেই, কাঠুরিয়াপল্লীতে তখন কাঠচেরাইয়ের শব্দ

একশত কাঁসার বাটি যেন আছড়ে পড়ে।

 

সেই কারো হাত থেকে প্রথম পুষ্প নেয়ার পাপ,

বুকে শুকনো পাতার মতো হাহাকাররাশি

তখনই কি একসাথে নিভে যায় সমস্ত জ্বলন্ত মোমবাতি?

 

সেই কি প্রথম আমি কাঁদলাম, সেই কি প্রথম সারারাত ঘুমহীন গেলো,

কেউ জানলো না,

শুধু কে যেন বললো, আর কী, এবার অশান্তি ভোগ করো, অনুতাপ করো;

 

সেই থেকে আমি আগুনের দগ্ধ অঙ্গার, তপ্তজল, শিলাভস্ম

সেই থেকে অস্থির আহত নয়ন, এক বেদানাকিশোর।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow