Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ১২ জানুয়ারি, ২০১৯ ১৮:১১ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ১২ জানুয়ারি, ২০১৯ ১৮:১২
বিপিএলে প্রথমবার সুপার ওভারের স্বাদ
অনলাইন ডেস্ক
বিপিএলে প্রথমবার সুপার ওভারের স্বাদ

টস জিতে চিটাগাং ভাইকিংস অধিনায়ক মুশফিক ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছিল রান তাড়া করার লক্ষ্যে। কিন্তু পরে ব্যাট করেও রান তাড়া করে জিততে পারল না খুলনার বিপক্ষে।

সমান ওভারে সমান রান করে সুপার ওভারে গড়িয়েছে ম্যাচ। তাতে এবার প্রথমবারের মতো সুপার ওভারের স্বাদ পায় বিপিএল।

আগে ব্যাট করে খুলনার সংগ্রহ ৬ উইকেটে ১৫১ রান। বিপরীতে নির্দিষ্ট ওভার ব্যাট করে ৮ উইকেটে ১৫১ রান সংগ্রহ করেছে চিটাগং। খেলা পড়ায় সুপার ওভারে।

এদিকে, সুপার ওভারে ব্যাট করার সুযোগ পেয়ে রুব্বি ফ্রাঙ্কলিঙ্ক এবং ক্যামেরন ডেলপোর্টকে ব্যাটে পাঠায় চিটাগং ভাইকিংস। অপরদিকে বল করতে আসেন জুনায়েদ খান।

প্রথম বলেই বাউন্ডারি হাঁকান ডেলপোর্ট। দ্বিতীয় বলে ১ রান। তৃতীয় বলে আবারো বাউন্ডারি হাঁকানো রুব্বি ফ্রাঙ্কলিঙ্ক চতুর্থ বলে বোল্ড হয়ে ফেরেন। পঞ্চম এবং শেষ বলে ১টি করে রান দেন জুনায়েদ।

সুপার ওভারে খুলনার টার্গেট দাঁড়ায় ১২ রান। জুনায়েদের ওভার ছিল এমন: ৪,১,৪,আউট,১,১।

জবাবে কার্লস ব্রাথওয়েট এবং ডেভিড মালানকে পাঠায় খুলনা। অপরদিকে ব্যাট-প্যাড খুলে বল করতে আসেন রুব্বি ফ্রাঙ্কলিঙ্ক।

ওভারের প্রথম বলে সিঙ্গেল নিলে স্ট্রাইকে যান মালান। এসেই বাউন্ডারি হাঁকান তিনি। পরের বলে মিড ডিপ উইকেটে বল রেখে দ্রুত দুই রান তুলে নেয় আবারো স্ট্রাইকে আসেন মালান। চতুর্থ বল ব্যাটেই লাগাতে পারেননি মালান। কিপারের হাতে বল রেখে রান নিতে গিয়ে আউট হন ব্রাফেট। পঞ্চম বলে ফুলটসে সজোরে হাঁকিয়েছিলেন পল স্টার্লিং। ওই বলে আসে ২ রান। শেষ বলে জয়ের জন্য খুলনার দরকার ছিল ৩ রান। কিন্তু শেষ বলও ব্যাটে লাগাতে ব্যর্থ হন স্টার্লিং। যদিও একটি রান নিতে সক্ষম হয় তারা। আর ১ রানের জয় পায় চিটাগং।

ফ্রাঙ্কলিঙ্কের ওভার ছিল এমন: ১, ৪, ২, আউট, ২, ১।

বিডি প্রতিদিন/১২ জানুয়ারি ২০১৯/আরাফাত

আপনার মন্তব্য

up-arrow