Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ১৬ মার্চ, ২০১৭ ২০:৩২ অনলাইন ভার্সন
সাংবাদিকের উপর হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন
ঢাবি প্রতিনিধি :
সাংবাদিকের উপর হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের ছাত্র এবং বার্তা সংস্থা ইউএনবির বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি ইমরান হোসেনের উপর হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১১ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের অপরাজেয় বাংলার পাদ দেশে গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষার্থী কর্তৃক এ মানববন্ধনের আয়োজন করা হয়।

মানববন্ধনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের ছাত্র এবং বার্তা সংস্থা ইউএনবির বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি ইমরান হোসেনের উপর হামলার প্রতিবাদ এবং দ্রুত হামলাকারীদের শাস্তির দাবি জানানো হয়।

ঢাবির গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের অধ্যাপক ড. আবুল মনসুর আহমেদ বলেন, একটি বিশেষ মহল কিছুদিন ধরে ক্যাম্প্যাসকে অস্থিতিশীল করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। তারই ধারাবাহিকতার ফসল স্বরূপ ইমরানের উপর এ বর্বরোচিত হামলা। আমি এ হামলার তীব্র নিন্দা জানাই এবং যে বা যারা এ হামলার সাথে জড়িত তাদের কঠোর শাস্তির দাবি জানাই।”

এসময় বিভাগের সাধারণ শিক্ষার্থীদের ক্ষোভে ফেটে পড়তে দেখা যায়। সাংবাদিকতা বিভাগের প্রভাষক মো: আসাদুজ্জামান বলেন,” বিজয় ৭১ হলের ১৪ মার্চের ঘটনা কোন বিচ্ছিন্ন ঘটনা নয়। হামলার ধরন বিশ্লেষন করলে বোঝা যায় এটা অবশ্যই পূর্বপরিকল্পিত ছিলো। রাতের অন্ধকারে এমন হামলা মেনে নেওয়া যায় না। এ ঘটনার সাথে জড়িতরা যে দলের হোক না কেনো সেটা বিবেচনায় না নিয়ে জড়িতদের বিশ্ববিদ্যালয়ের বিধি মোতাবেক কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য ঢাবি প্রশাসনের নিকট দাবি জানাই।

এসময় গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের ৩য় বর্ষের শিক্ষার্থী মনোয়ার হোসেন মান্না বলেন,” ব্যক্তিগত ভাবে হামলাকারীদের আমি চিনি। একটি বিশেষ মহল ঘটনার সাথে জড়িতদেরকে আড়াল করে সাধারণ শিক্ষার্থীদের ফাঁসানোর চেষ্টা করছে।”

আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে ঘটনায় জড়িত সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে যথোপযুক্ত ব্যবস্থা না নেওয়া হলে এসময় মানববন্ধন থেকে বৃহত্তর আন্দোলন গড়ে তোলার হুমকী দেওয়া হয়।

উল্লেখ্য, বিগত সোমবার রাত সাড়ে ৪ টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজয় ৭১ হলের ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক নয়ন হাওলাদারের অনুসারীরা বার্তা সংস্থা ইউএনবির বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি ইমরান হোসেনের উপর হামলা চালায়। এতে তিনি ৩ ঘণ্টা অজ্ঞান ছিলেন। এখন তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় মেডিকেল সেন্টারে চিকিৎসাধীন।

বিডি প্রতিদিন/ সালাহ উদ্দীন

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow