Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ২৫ নভেম্বর, ২০১৭

ঢাকা, শনিবার, ২৫ নভেম্বর, ২০১৭
প্রকাশ : ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ১৬:৫৪ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ১৬:৫৯
বেরোবিতে নির্বাচনী প্রচারণায় সাকিব!
সৌম্য সরকার, বেরোবি
বেরোবিতে নির্বাচনী প্রচারণায় সাকিব!

বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে একটি ক্রিকেট কর্মশালা হওয়ার প্রচারণা চলছিল কিছুদিন থেকেই। সেই কর্মশালায় ক্রিকেটারদের বিভিন্ন প্রশিক্ষণ দেবেন সাকিব আল হাসান।

এভাবেই গত প্রায় এক সপ্তাহ থেকে রংপুরে চলে জোর প্রচারণা। কিন্তু এদিন সাকিব উপস্থিতি হলেও সেই কর্মশালা হয়নি। তাই কর্মশালা যোগ দিতে আসা ক্রিকেটাররা দাবি করছেন, সাকিবের জনপ্রিয়তাকে কাজে লাগিয়ে হাজারো মানুষের সামনে রাশেক রহমান তার নির্বাচনী প্রচারণা করেছেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, সাকিব আল হাসানের আগমণ উপলক্ষ্যে রংপুরের তরুণ-তরুণীরা অপেক্ষার প্রহর গুণতে থাকে। সবার প্রত্যাশা ছিল সাকিব আল হাসানের ব্যাটিং-বোলিং খুব কাছ থেকে দেখার।  আর কর্মশালায় অংশ নেয়া ক্রিকেটারদের স্বপ্ন ছিল বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডারের কাছ থেকে ক্রিকেটের খুঁটিনাটি বিষয়গুলো রপ্ত করে নিজেকে মেলে ধরার।

বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে কোন স্টেডিয়াম নেই। একটি মাঠেই খেলাধুলা করে শিক্ষার্থীরা। সেখানেই আয়োজন করা হয় ক্রিকেট কর্মশালার।

প্রিয় তারকাকে দেখতে সকাল দশটার মধ্যেই মাঠে হাজির হয় কয়েক হাজার দর্শক। কিন্তু মাঠকে যেভাবে প্রস্তুত করা হয়েছিল তা একটি রাজনৈতিক সমাবেশের জন্য উপযুক্ত হলেও খেলা বা অনুশীলনের তেমন সুযোগ ছিল না। দর্শক যাতে মাঠে প্রবেশ করতে না পারে সেজন্য তেমন ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। একটি চিকন রশি দিয়ে মাঠকে ঘিরে রাখে আয়োজকরা।  

বেলা সাড়ে ১১টায় মঞ্চে উঠে আসেন সাকিব। তিনি আসা মাত্রই রশি ভেদ করে মাঠে প্রবেশ করে হাজার হাজার দর্শক। অবস্থা বেগতিক দেখে আর মাঠে নামেননি সাকিব। কিছুক্ষণ মঞ্চে থাকার পর তিনি মাঠ ত্যাগ করেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে কর্মমালায় অংশ নেয়ার প্রস্তুতি গ্রহণ করা কয়েকজন খেলোয়াড় অভিযোগ করে বলেন, আয়োজকরা সাকিবকে ক্রিকেট শেখানোর উদ্দেশ্যে আনেননি। আনলে মাঠে পর্যাপ্ত নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা থাকত। দর্শকরা মাঠে প্রবেশ করতে পারত না। তাদের দাবি, সাকিবকে মডেল হিসেবে ব্যবহার করে তার জনপ্রিয়তাকে কাজে লাগিয়ে হাজার হাজার তরুণ-তরুণীর সামনে রাশেক রহমান তার নির্বাচনী প্রচারণা করেছেন।

গণমাধ্যম কর্মীরা এ বিষয়ে রাশেক রহমান ও সাকিব আল হাসানের সাথে কথা বলতে চাইলে পরে কথা বলবে বলে আশ্বস্ত করেন গণমাধ্যম কর্মীদের। পরে বক্তৃতা শেষে কথা না বলেই বিশ্ববিদ্যালয় ত্যাগ করেন সাকিব।  

এর আগে, বিভিন্ন স্থান থেকে রাশেক রহমানের সমর্থনে ব্যানার-ফেস্টুন সম্বলিত বেশ কিছু গাড়ি নিয়ে ক্যাম্পাসে প্রবেশ করে তার সমর্থকরা।  

উল্লেখ্য, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কোষাধ্যক্ষ্য ও রংপুর -৫ আসনের সংসদ সদস্য এইচ এন আশিকুর রহমানের ছেলে রাশেক রহমান আসন্ন রংপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের একজন মনোনয়ন প্রত্যাশী প্রার্থী।

বিডি-প্রতিদিন/১৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৭/মাহবুব

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow