Bangladesh Pratidin

ফোকাস

  • 'শিগগিরই এক লাখ রোহিঙ্গাকে ভাসানচরে স্থানান্তর করা হবে'
  • খালেদার জামিন শুনানি বৃহস্পতিবার পর্যন্ত মুলতবি
  • মাদক সম্রাট সংসদেই অাছে, তাদের ফাঁসি দেন : এরশাদ
প্রকাশ : ২৩ এপ্রিল, ২০১৮ ১২:১৯ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ২৩ এপ্রিল, ২০১৮ ১৭:০২
সাধারণ ছাত্রীদের সঙ্গে সেই ছাত্রলীগ নেত্রীর মারামারি
নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশাল
সাধারণ ছাত্রীদের সঙ্গে সেই ছাত্রলীগ নেত্রীর মারামারি

কথিত এক ছাত্রলীগ নেত্রীর শারীরিক ও মানসিক নির্যাতনের বিরুদ্ধে ফুঁসে উঠেছে বরিশাল বিএম কলেজের ডা. বনমালী গাঙ্গুলী ছাত্রী নিবাসের সহস্রাধিক ছাত্রী। দীর্ঘদিন ধরে নিরবে তার অত্যাচার সহ্য করলে রবিবার উপাধ্যক্ষ প্রফেসর স্বপন কুমার পালের মাধ্যমে কলেজ অধ্যক্ষকে স্মারকলিপি দেন আবাসিক ছাত্রীরা। এরপর ক্ষোভে সেই ছাত্রীদের ওপর সন্ধ্যায় হামলা করতে যান কথিত ছাত্রলীগ নেত্রী ফারজানা আক্তার ঝুমু। এ সময় দু'পক্ষের মধ্যে মারামারির ঘটনাও ঘটে। সাধারণ ছাত্রীদের অভিযোগ, স্মারকলিপি দেওয়ায় ক্ষোভে ঝুমু তাদের ওপর হামলা করে। এসময় তারা জবাব দেওয়ার চেষ্টা করেন। এ সময় দু'পক্ষের মধ্যে মারামারির ঘটনা ঘটে।

এর আগে, কলেজ অধ্যক্ষকে স্মারকলিপি দেওয়া হয়। সেখানে অভিযোগ করা হয়, কলেজের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের ৩য় বর্ষের ছাত্রী ডা. বনমালী গাঙ্গুলী ছাত্রী নিবাসের আবাসিক বাসিন্দা কথিত ছাত্রলীগ নেত্রী ফারজানা আক্তার ঝুমুর দীর্ঘদিন ধরে সাধারণ ছাত্রীদের নানা অনৈতিক কর্মকাণ্ড করার জন্য প্রলোভন এবং কখনও কখনও চাপ প্রয়োগ করে আসছে। তার কথা না শুনলেই সাধারণ ছাত্রীদের নির্যাতন করা হয়। ঝুমুর ছাত্রলীগের নাম ব্যবহার করে ইয়াবা বিক্রিসহ ছাত্রী নিবাসে নৈরাজ্য সৃষ্টি করে আসছে বলেও অভিযোগ তাদের। 

ডা. বনমালী গাঙ্গুলী ছাত্রী নিবাসের বাসিন্দা রহিমা আফরোজ ইভা জানান, ঝুমুরের কথা না শোনায় গত ০১ জানুয়ারি বনমালী গাঙ্গুলী ছাত্রী নিবাসের ২ নম্বর ভবনের বাসিন্দা ঐশীকে ঘুমন্ত অবস্থায় বেদম মারধর করে ছাত্রী নিবাস থেকে বের করে দেওয়া হয়। ১৯ মার্চ ২ নম্বর ভবনের আরেক বাসিন্দা শারমিনকে মারধর করে সে। সবশেষ গত ২০ এপ্রিল জান্নাত ও ইভা নামে দুই ছাত্রীকে মারধরের হুমকি দেয় ঝুমুর। স্মারকলিপিতে নির্যাতন থেকে বাঁচতে সাধারণ ছাত্রীরা হল থেকে ঝুমুরকে বহিষ্কারের দাবি জানান। 

আবাসিক ছাত্রী জান্নাতুল ফেরদৌস জানান, ঝুমুরের বিষয়ে একাধিক প্রভাবশালী নেতাদের জানানো হয়েছে। কিন্তু তার বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে না। 

অভিযোগের বিষয়ে বক্তব্য জানতে ফারজানা আক্তার ঝুমুরের মুঠোফোনে ফোন দেওয়া হলেও তার নম্বর বন্ধ পাওয়া যায়। 

বিএম কলেজের উপাধ্যক্ষ প্রফেসর স্বপন কুমার পাল জানান, সাধারণ আবাসিক ছাত্রীরা কর্তৃপক্ষের কাছে একটি অভিযোগ দিয়েছে। অভিযোগ তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। 

বিডি-প্রতিদিন/২৩ এপ্রিল, ২০১৮/মাহবুব

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow