Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ১৭:২৯ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ১৮:১৭
চট্টগ্রাম কলেজে ছাত্রলীগের দু'গ্রুপের সংঘর্ষ
নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম
চট্টগ্রাম কলেজে ছাত্রলীগের দু'গ্রুপের সংঘর্ষ

দীর্ঘ ৩৫ বছর পর  চট্টগ্রাম কলেজে ছাত্রলীগের ঘোষিত কমিটি অনুমোদনকে কেন্দ্র করে পদবঞ্চিতরা দফায় দফায় সংঘর্ষে লিপ্ত হয়েছে। মঙ্গলবার সকাল থেকে ইট-পাটকেল ছুড়ে, টায়ার জ্বালিয়ে তারা বিক্ষোভ করে। এ সময় পরীক্ষার্থীসহ সাধারণ ছাত্রদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। কলেজের সামনের সড়কটি হয়ে পড়ে যানবাহন শূন্য। সংঘর্ষে আহত কয়েকজনকে চমেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

ছাত্রলীগ কলেজ শাখা সূত্রে জানা যায়, ১৯৮৪ সালে সত্যজিৎ চক্রবর্তী সুজনকে আহ্বায়ক করে চট্টগ্রাম কলেজ ছাত্রলীগের কমিটি হয়েছিল। তবে কলেজ ক্যাম্পাসে কোনো অনুষ্ঠান করতে পারত না সেই কমিটি। দীর্ঘ দিন পর ছাত্রশিবিরের দুর্গ হিসেবে পরিচিত চট্টগ্রাম কলেজে ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণাকে কেন্দ্র করে পদবঞ্চিতরা অতর্কিত হামলা চালিয়েছে।   

চকবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কালাম বলেন, ‘ছাত্রলীগ চট্টগ্রাম কলেজ শাখার কমিটি ঘোষণার পর পদবঞ্চিত নেতারা সড়ক অবরোধ করে মিছিল করে। তারা সড়কে টায়ার জ্বালিয়ে আতঙ্ক ছড়ানোর চেষ্টা করে। আমরা তাদের সড়ক থেকে সরিয়ে দিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করেছি।’  

জানা যায়, ছাত্রশিবিরের দুর্গ হিসেবে পরিচিত চট্টগ্রাম কলেজে এক বছরের জন্য মাহমুদুল করিমকে সভাপতি ও সুভাষ মল্লিক সবুজকে সাধারণ সম্পাদক করে ছাত্রলীগের কমিটি অনুমোদন দিয়েছে নগর ছাত্রলীগ। গত সোমবার রাতে এ  কমিটি ঘোষণা করা হয়। এর আগে ২০১৫ সালের ১৬ ডিসেম্বর শিবিরকে বিতাড়িত করে ছাত্রলীগ চট্টগ্রাম কলেজে একক আধিপত্য প্রতিষ্ঠা করে।

নগর ছাত্রলীগের সভাপতি ইমরান আহাম্মেদ ইমু বলেন, ‘ছাত্রলীগ চট্টগ্রাম কলেজ শাখার কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে। কমিটিতে অতীতে যারা সংগঠনের জন্য অবদান রেখেছেন, ভালো কাজ করছেন তাদের মূল্যায়ন করা হয়েছে।’

দলীয় সূত্রে জানা যায়, ১৯৮১ সালের ২০ সেপ্টেম্বর চট্টগ্রাম কলেজ ছাত্রাবাস এলাকায় সরকারি সিটি বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ ছাত্রলীগ নেতা তবারক হোসেনকে হত্যা করে শিবিরের ক্যাডাররা। ১৯৮৪ সালের ২৮ মে ছাত্র ইউনিয়নের চট্টগ্রাম জেলা শাখার নেতা শাহাদাত হোসেনকে কলেজ ছাত্রাবাসে গলা কেটে হত্যার মধ্য দিয়ে কলেজ ক্যাম্পাসে একক আধিপত্য শুরু করে শিবির। সর্বশেষ ১৯৮৪ সালে সত্যজিৎ চক্রবর্তী সুজনকে আহ্বায়ক করে চট্টগ্রাম কলেজ ছাত্রলীগের কমিটি হয়েছিল। কিন্তু কলেজ ক্যাম্পাসে কোনো অনুষ্ঠান করতে পারত না সেই কমিটি।

বিডি-প্রতিদিন/১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৮/মাহবুব

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow