Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ১৫:৪৬ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ১৬:৫৭
রাবি শিক্ষার্থীর পাশে দাঁড়ালেন ছাত্রলীগ সভাপতি
রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি
রাবি শিক্ষার্থীর পাশে দাঁড়ালেন ছাত্রলীগ সভাপতি
গোলাম কিবরিয়া (বামে) ও আব্দুস সালাম (ডানে)

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী আব্দুস সালাম। দরিদ্র পরিবারের সন্তান সালাম নিজের পড়ালেখা ও সংসারের খরচ জোগাতে বেছে নিয়েছেন দিন মজুরের কাজ। এমন অবস্থায় তার পাশে দাঁড়িয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি গোলাম কিবরিয়া। সালামের লেখাপড়া, থাকা-খাওয়াসহ যাবতীয় খরচ বহনের দায়িত্ব নিয়েছেন ছাত্রলীগের এ নেতা।

আব্দুস সালাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শারীরিক শিক্ষা ও ক্রীড়া বিজ্ঞান বিভাগের প্রথম বর্ষের (২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষ) শিক্ষার্থী। তার বাসা দিনাজপুরের পীরগঞ্জ উপজেলায়। 

আবদুস সালাম জানায়, তার বাবা একসময় ফুটপাতে বিভিন্ন পণ্যের ব্যবসা করতেন। বর্তমানে বার্ধক্যের কারণে তিনি আর সেই কাজ করতে পারেন না। বড়ভাই প্রতিবন্ধী আর ছোটবোন লেখাপড়া করেন। দরিদ্র বাবার পক্ষে লেখাপড়ার খরচ জোগাতে না পারায় দিনমজুরের কাজ করে নিজের খরচ চালান। সপ্তাহে দুইদিন শ্রমিকের কাজ করেন আর এরপরের দুইদিন ক্লাস করেন। এভাবে চলে তার লেখাপড়া।

আব্দুস সালাম আরও বলেন, ‘লেখাপড়ার খরচ জোগাতে দিন মজুরের কাজ করছিলাম। ছাত্রলীগের সভাপতি গোলাম কিবরিয়া ভাই খবর পেয়ে আমাকে ডেকে পাঠান। তার সাথে দেখা করতে গেলে তিনি আমার পরিবার খোঁজ নেন এবং লেখাপড়া, থাকা-খাওয়াসহ যাবতীয় খরচ বহনের আশ্বাস দিয়েছেন। শেরে বাংলা হলে আমার থাকার ব্যবস্থা করেছেন। আগে লেখাপড়া করতে পারতাম না। সবসময় অর্থের আর খাওয়ার টেনশনে ছিলাম। এখন অনেকটা টেনশন কমে গেল।’

জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি গোলাম কিবরিয়া বলেন, ‘সালামের বিষয়টি জানার পর আমার খারাপ লাগে। আমার দায়িত্ববোধে জায়গা থেকে তাকে ডেকে পাঠাই। তার যাবতীয় দায়িত্ব আমি নিয়েছি। প্রাথমিকভাবে তাকে হলে তুলে দিয়েছি এবং ক্যাম্পাসে তার খাবার খরচের দায়িত্ব নিয়েছি। সে যেন সুষ্ঠুভাবে লেখাপড়া চালাতে পারে এটাই আমার কামনা। তাকে বলেছি যে কোন প্রয়োজনে আমার সাথে যোগাযোগ করতে।’


বিডি প্রতিদিন/ ওয়াসিফ

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow