Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ১৩:২৫ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ১৯:৩৫
শাবির ছাত্রী হলের পানিতে মিলছে কেঁচো-জোঁক!
শাবি প্রতিনিধি:
শাবির ছাত্রী হলের পানিতে মিলছে কেঁচো-জোঁক!

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) বেগম সিরাজুন্নেসা চৌধুরী ছাত্রী হলের পানিতে প্রতিদিন মিলছে কেঁচো, জোঁক ও পোকা। এ নিয়ে চরম বিপাকে পড়েছে ঐ হলের আবাসিক শিক্ষার্থীরা। 

জানা যায়, গত কয়েক মাস ধরে বেগম সিরাজুন্নেসা চৌধুরী ছাত্রী হলের সব ব্লকের বাথরুম ও খাবার পানির ট্যাপ দিয়ে কেঁচো ও পোকা পড়ছে। এই পানি দিয়েই আবার হলের ডাইনিং ও ক্যান্টিনে খাবার তৈরি হচ্ছে। আবাসিক ছাত্রী হলের শিক্ষার্থীরা এসব পানি ব্যবহার করছে নিজেদের খাওয়া, রান্না, গোসলসহ নিত্যনৈমত্তিক কাজে। 

বেগম সিরাজুন্নেসা চৌধুরী হলের আবাসিক ছাত্রী কৃষ্ণা রানী নাথ বলেন, বিগত কয়েক মাস যাবৎ পানিতে কেঁচো, জোঁকসহ নানা ধরণের পোকা-মাকড় পাওয়া যাচ্ছে। এই পানি ব্যবহার করার ফলে ছাত্রীরা আক্রান্ত হচ্ছে নানাবিধ চর্মরোগ ও পেটের পীড়ায়। এ বিষয়ে হল সুপারভাইজারকে বললে তিনি ১০/১৫ টাকার ছাঁকনি ব্যবহার করে পানি খাওয়ার পরামর্শ দেন।

এ ব্যাপারে বেগম সিরাজুন্নেসা চৌধুরী হলের প্রভোস্ট শরীফা ইয়াসমিন বলেন, ‘তথ্যগুলো সত্য। কোন বিশেষ কারণে ঘন ঘন পানির ট্যাংক পরিস্কার ও ব্লিচিং পাউডার দেয়ার পরও পানিতে পোকা পাওয়া যাচ্ছে। এ ব্যাপারে বিশেষ উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে।’ আগামী দুই মাসের মধ্যে এ বিষয়টি সমাধান হবে বলেও তিনি আশ্বাস দেন। 


বিডি প্রতিদিন/২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮/হিমেল

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow