Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ৮ ডিসেম্বর, ২০১৮ ২২:৩৪ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ৯ ডিসেম্বর, ২০১৮ ১১:৪৩
স্কুলছাত্রকে বলৎকার করে ভিডিও ধারণ, যুবলীগ কর্মী আটক
ইবি প্রতিনিধি:
স্কুলছাত্রকে বলৎকার করে ভিডিও ধারণ, যুবলীগ কর্মী আটক

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (ইবি) ল্যাবরেটরী স্কুল এন্ড কলেজের চতুর্থ শ্রেণির এক ছাত্রকে বলাৎকার করে ভিডিও ধারণ করার ঘটনা ঘটেছে। রতন (৩০) নামের এক যুবলীগ কর্মীর বিরুদ্ধে ওই ছাত্রকে বলাৎকার করে ভিডিও ধারণ করার অভিযোগ উঠেছে। শনিবার বেলা দেড়টার দিকে হরিনারায়নপুর বালুভান্ডারে এ ঘটনা ঘটে। 

পরে সংবাদ পেয়ে বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে বালুভান্ডার থেকে অভিযুক্ত যুবলীগ কর্মীকে আটক করে ইবি থানা পুলিশ। অভিযুক্ত রতন কুষ্টিয়া জেলার ইবি থানাধীন পূর্ব আব্দালপুর গ্রামের মৃত গঞ্জের আলীর পুত্র। এছাড়া তিনি হরিনারাযনপুর ইউনিয়ন যুবলীগের সদস্য। 

থানা সূত্রে জানা যায়, স্কুলছাত্র অসীম (ছদ্মনাম) হরিনারায়নপুরে নিজ গ্রামে বন্ধুদের সাথে খেলতে যায়। এসময় যুবলীগ কর্মী রতন তাকে মোটরসাইকেলে ঘুরাবে বলে নিয়ে যায়। পরে নিজের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বালুরভান্ডারের বাথরুমে নিয়ে তাকে বলাৎকার করে। একই সাথে তার মোবাইলে ভিডিও ধারণ করে। পরে অভিযোগের ভিত্তিতে ইবি থানার পুলিশ তাকে আটক করে।

ভুক্তভোগী ছাত্র জানায়, ঘুরানোর নাম করে রতন তাকে অত্যাচার করেছে। এছাড়া  ভয়-ভীতি দেখিয়ে ঘটনা গোপন রাখতে বলেছে। 

এছাড়া রতনের বিরুদ্ধে নিজ বালুভান্ডারের কর্মচারীসহ আরও অন্যান্য শিশুদের সাথে এমন অপকর্মের অভিযোগ রয়েছে। 

এ বিষয়ে ইবি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রতন শেখ জানান, ‘অভিযোগ পাওয়ার ২ ঘণ্টার মধ্যে অভিযুক্তকে আটক করেছি এবং ভিডিও জব্দ করতে সক্ষম হয়েছি। তার বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।’

উল্লেখ্য, ভুক্তভোগী ছাত্রের পিতা ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় পরিবহণ দপ্তরের সাবেক কর্মচারী (মৃত্যু) এবং মা বিশ্ববিদ্যালয় চিকিৎসা কেন্দ্রের কর্মচারী। এ ঘটনার তার মাসহ এলাকাবাসী রতনের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেছে।


বিডি প্রতিদিন/হিমেল

আপনার মন্তব্য

সর্বাধিক পঠিত
up-arrow