Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ১৬:৫৪ অনলাইন ভার্সন
নেতৃত্ব হলো নিজে জানা, মানা এবং অন্যকে জানানো : ইবি উপাচার্য
ইবি প্রতিনিধি
নেতৃত্ব হলো নিজে জানা, মানা এবং অন্যকে জানানো : ইবি উপাচার্য

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. হারুন-উর-রশিদ আসকারী বলেছেন, নেতৃত্ব হলো নিজে জানা, মানা এবং অন্যকে জানানো। গতানুগতিকতায় গা ভাসিয়ে নেতা হওয়া যায় না। বৃত্তাবদ্ধ থেকে কখনও বিখ্যাত নেতা হওয়া যায় না। 

শনিবার সকাল ১১ টার দিকে বীরশ্রেষ্ঠ হামিদুর রহমান মিলনায়তনে আইন অনুষদের আয়োজনে উচ্চ শিক্ষার মানোন্নয়নে নেতৃত্বের প্রয়োজনীয়তা শীর্ষক সেমিনার উদ্বোধনকালে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন। 

তিনি আরও বলেন, জীবনের যে পথটি কন্টকাকীর্ণ, যে পথে খুব কম মানুষ গেছে, যে পথ অমসৃণ-বন্ধুর এবং শ্বাপদসঙ্কুল সেই পথ বেছে নেয়াই হচ্ছে প্রকৃত নেতৃত্বের কাজ। নেতৃত্বের পথ কিন্তু এত সহজ, সরল নয়। এটি বক্র এবং কন্টকাকীণ। আমরা যারা নেতৃত্ব দিতে চাইবো তাদেরকে সেই দুর্গম পথটাকে বেছে নিতে হবে। 

আইন অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. রেবা মন্ডলের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মুখ্য আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইউনির্ভাসিটি অব লিবারেল আটর্স বাংলাদেশের উপাচার্য অধ্যাপক ড. এইচ এম জহিরুল হক।

তিনি বলেন, নিজের মানসিকতা পরিবর্তন করতে হবে। তাহলে সমাজ পরিবর্তন হবে। নিজেকে লিডার হিসেবে তুলে ধরতে হলে কঠোর পরিশ্রম করতে হবে। প্রতিষ্ঠানকে নিজের মনে করতে দেখতে হবে, সেবার মানসিকতা থাকতে হবে। সব কাজে স্বচ্ছতা থাকতে হবে এবং সৎ হতে হবে। তাহলে নিজেকে একজন ভাল লিডার হিসেবে উপস্থাপন করা সম্ভব হবে।

ল' এন্ড ল্যান্ড ম্যানেজমেন্ট বিভাগের প্রভাষক বনানী আফরিনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. অরবিন্দ সাহা ও কুষ্টিয়া রবীন্দ্র মৈত্রী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাষ্টি বোর্ডের ভাইস চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. জহুরুল ইসলাম। 

সেমিনারে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট সদস্য ও সাবেক প্রক্টর অধ্যাপক ড. মাহবুবর রহমান, ছাত্র উপদেষ্টা অধ্যাপক ড. পরেশ চন্দ্র বর্মণ, প্রক্টর (দায়িত্বপ্রাপ্ত) সহযোগী অদ্যাপক ড. আনিছুর রহমান, অধ্যাপক ড. শাহজাহান মন্ডলসহ বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।


বিডি-প্রতিদিন/আব্দুল্লাহ তাফসীর

আপনার মন্তব্য

up-arrow