Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ১৭ আগস্ট, ২০১৮ ২০:৫১ অনলাইন ভার্সন
চট্টগ্রামে হোটেল থেকে যুবকের গলাকাটা লাশ উদ্ধার, প্রেমিকা আটক
নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম
চট্টগ্রামে হোটেল থেকে যুবকের গলাকাটা লাশ উদ্ধার, প্রেমিকা আটক
bd-pratidin

চট্টগ্রাম নগরীর একটি আবাসিক হোটেল থেকে মোহাম্মদ মাঈনুদ্দীন প্রকাশ শাহরিয়ার শুভ নামে এক যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে নগরীর খুলশী থানাধীন ফয়’স লেক এলাকার লেকভিউ আবাসিক হোটেল থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে শুভ’র কথিত স্ত্রী ডা. রোকসানা আক্তার পপি নামে এক নারীকে আটক করেছে পুলিশ।

শুভ ছাগলনাইয়া উপজেলার ৯ নং শুভপুর ইউপির ১ নং ওয়ার্ড বালিরচর গ্রামের সিরাজুল ইসলামের পুত্র। সে ছাত্রলীগের রাজনীতির সাথে জড়িত ছিল। রাজনীতির পাশাপাশি ব্যবসাও করতেন তিনি। সিএমপি’র উপ-কমিশনার (উত্তর) ওয়ারিশ আহমেদ বলেন, ‘মাঈনুদ্দীন লাশ উদ্ধারের পর তদন্তে নামে পুলিশ। এরই মধ্যে কয়েকজনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।’

খুলশী থানার ওসি শেখ নাছের বলেন, মাইনুদ্দিন বুধবার রাতে হোটেলে উঠেছিলেন। পরের রাতে তার লাশ পাওয়া গেছে। তাকে জবাই করে খুন করে হোটেলের কক্ষে ফেলে রাখা হয়েছিল। মাথা এবং শরীর আলাদা পাওয়া গেছে।

শুভ’র বড় ভাই মো. জাফর বলেন, একটি মেয়ের সাথে আমার ভাইয়ের সম্পর্ক ছিল। মেয়েটি বৃহস্পতিবার চীন থেকে দেশে আছে। তাকে শুভ ঢাকা বিমান বন্দরে রিসিভ করে চট্টগ্রামে আসে। পরিকল্পিত ভাবে তাকে হোটেলে এনে হত্যা করা হয়েছে সেই মেয়ের পরিবারের লোকজন।

একাধিক সুত্রে জানা যায়, শুভ ও পপির মধ্যে দীর্ঘদিন প্রেমের সম্পর্ক ছিল। কয়েক বছর আগে তারা গোপনে বিয়ে করে।  কিন্তু পপির পরিবার এ বিয়ে মেনে নেয়নি। তারা পপিকে জোরপূর্বক তালাক করিয়ে নেয়। পরে দেড় বছর আগে লেখাপড়ার জন্য পপিকে চীন পাঠিয়ে দেয়।  চীনে থাকাকালে পপি মীরসরাই এলাকায় অপর এক যুবকের সাথে সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে। এ নিয়ে পপির সাথে শাহরিয়ার শুভ বিরোধ শুরু হয়।  ২/৩ দিন আগে শুভ পপির সেই কথিত প্রেমিককে খুঁতে যায় একটি কোচিং সেন্টারে।


বিডি প্রতিদিন/আব্দুল্লাহ সিফাত তাফসীর

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow