Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ২০:৩০ অনলাইন ভার্সন
গবেষণা সম্মেলনে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী
উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে অভিন্ন সিলেবাস প্রণয়ন জরুরি
নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম:
উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে অভিন্ন সিলেবাস প্রণয়ন জরুরি

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. রইছুল আলম মন্ডল বলেছেন, ‘দেশের প্রত্যেক সেক্টরে দক্ষ লোকের চাহিদা রয়েছে। তাই দক্ষ লোকের চাহিদা পূরণের লক্ষ্যে উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে অভিন্ন সিলেবাস কারিকুলাম প্রণয়ন করা জরুরি। তাহলে সবাই সমানভাবে দক্ষতা অর্জন করতে পারবে। বিশেষ করে ভেটেরিনারি পেশাকে অর্থবহ করতে হলে বাস্তবতার নিরিখে সিলেবাস কারিকুলামকে ঢেলে সাজাতে হবে।’  

আজ বুধবার দুপুরে চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি ও এনিম্যাল সাইন্সেস বিশ্ববিদ্যালয়ের (সিভাসু) অডিটোরিয়ামে আয়োজিত দুই দিনব্যাপী ‘৪র্থ জাতীয় ডিভিএম ইন্টার্ন গবেষণা সম্মেলন’ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. গৌতম বুদ্ধ দাশের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ডা. মো. ইসমাইল খান, প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ডা. হিরেশ রঞ্জন ভৌমিক, ভেটেরিনারি মেডিসিন অনুষদের ডিন প্রফেসর মো. আ. হালিম, যুক্তরাষ্ট্রের টাফটস ইউনিভার্সিটির শিক্ষক ড. গ্রেগোরি এম. উলফুস, অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সিভাসুর বহিরাঙ্গণ কার্যক্রম পরিচালক প্রফেসর ড. একেএম সাইফুদ্দীন।   

সম্মেলনের মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা উপাচার্য প্রফেসর ড. নীতীশ চন্দ্র দেবনাথ এবং যুক্তরাষ্ট্রের টাফটস ইউনিভার্সিটি ও সিভাসুর মধ্যে বাস্তবায়নাধীন টুইনিং প্রকল্পের প্রজেক্ট লিডার প্রফেসর ড. মো. আহসানুল হক। এছাড়াও বিভিন্ন পর্যায়ের গবেষকগণ প্রায় ৪০টি প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন। সম্মেলনে বিষয় সংশ্লিষ্ট পোস্টারও প্রদর্শিত হয়। সম্মেলনে সিভাসুর শিক্ষক, ইন্টার্ন ছাত্রছাত্রী, প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তাবৃন্দ, দেশি-বিদেশি বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিনিধিবৃন্দ অংশগ্রহণ করছেন।

প্রধান অতিথি রইছুল আলম মন্ডল বলেন, ‘জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে পরিবেশ ও প্রাণি জগতে বিরূপ প্রভাব পড়ছে। এসব প্রতিকূল পরিস্থিতি মোকাবেলার জন্য ভেটেরিনারি পেশাজীবীদের ভূমিকা পালন করতে হবে। টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) অর্জনে এর কোনো বিকল্প নেই।    

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ সচিব বলেন, বর্তমানে বাংলাদেশ ডেইরি ও মৎস্য উৎপাদনে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জন করেছে। মাংস উৎপাদনেও আশার সঞ্চার করেছে। দেশীয় স্থানীয় জাতের গরুর মাংস উৎপাদনে সরকার অধিক গুরুত্ব দিচ্ছে। তাই ভেটেরিনারি পেশাজীবীদেরকে দেশীয় গরুর উৎপাদন বৃদ্ধির ব্যাপারে আন্তরিকভাবে কাজ করতে হবে।’

প্রফেসর ড. গৌতম বুদ্ধ দাশ বলেন, ডিভিএম ইন্টার্ন গবেষণা সম্মেলনের মূল লক্ষ্য হচ্ছে ইন্টার্নশিপ রোটেশনে দেশ ও বিদেশ থেকে শিক্ষার্থীরা যে কারিগরি শিক্ষা অর্জন করেছে, তা সকলের সঙ্গে শেয়ার করা। এছাড়াও শিক্ষার্থীদের মাঝে গবেষণার আগ্রহ তৈরি, দেশ-বিদেশের গবেষকদের মাঝে আলোচনা, প্রাণির সুস্বাস্থ্য নিশ্চিতকরণের নিমিত্তে গবেষক, ভেটেরিনারি সার্জন ও প্রাণিসম্পদ উদ্যোক্তাদের মাঝে সমন্বয় সাধন করা।’     

বিডি প্রতিদিন/এ মজুমদার 

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow