Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ২ অক্টোবর, ২০১৬

প্রকাশ : ৬ জুন, ২০১৬ ২০:৫০
রাজশাহীতে গৃহবধূ হত্যা মামলায় স্বামীর যাবজ্জীবন
নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী:
রাজশাহীতে গৃহবধূ হত্যা মামলায় স্বামীর যাবজ্জীবন

রাজশাহীতে চাঞ্চল্যকর গৃহবধূ রেফাতুন খাতুন হত্যা মামলায় স্বামী ইব্রাহীম হোসেন মোহনকে (২৩) যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। জরিমানা করা হয়েছে পাঁচ হাজার টাকা। অনাদায়ে আরও এক মাসের কারাদণ্ড।

সোমবার দুপুর সোয়া ৩টার দিকে রাজশাহীর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের (১) বিচারক মনসুর আলম এ রায় দেন। রায় ঘোষণাকালে আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন। একই মামলায় অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় ইব্রাহীমের মা জিন্নাতুন নেসা ও বোন সুমি খাতুনকে বেকসুর খালাস দিয়েছেন আদালত।

আদালত সূত্র জানায়, রাজশাহীর কয়েরদাড়া বিলপাড়া এলাকার ইব্রাহীমের সঙ্গে মোহনপুর উপজেলার মৌগাছি ইউনিয়নের ডুমুরিয়া গ্রামের রেফাতুন খাতুনের বিয়ে হয় ২০১২ সালের জুলাইয়ে। বিয়ের এক বছর না যেতেই ইব্রাহীম ও তার মা জিন্নাতুন নেসা এবং বোন সুমি খাতুন যৌতুকের দাবিতে গৃহবধূ রেফাতুনের ওপর অমানুষিক নির্যাতন শুরু করে। এরই সূত্র ধরে ২০১৩ সালের ২৩ জুলাই বিকেলে একই দাবিতে তারা গৃহবধূর ওপর শারীরিক নির্যাতন চালালে এক পর্যায়ে তার মৃত্যু হয়। ঘটনার পর ইব্রাহীম ও তার পরিবারের লোকজন বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে যায়। পরে মোবাইলে খবর পেয়ে নিহত গৃহবধূ রেফাতুন খাতুনের ভাই শাহীন আলম নগরীর বোয়ালিয়া মডেল থানা পুলিশের সহায়তায় তার বোনের মরদেহ উদ্ধার করে। এ ঘটনায় ইব্রাহীমসহ ওই তিনজনকে আসামি করে থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। পরে এ মামলায় ইব্রাহীম, তার মা জিন্নাতুন নেসা ও বোন সুমি গ্রেফতার হন। তদন্ত শেষে মহানগরীর বোয়ালিয়া মডেল থানা পুলিশ তাদের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। আদালতে ১৬ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ করা হয়। এতে ইব্রাহীমের বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় সোমবার দুপুরে আদালতের বিচারক তাকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেন। এছাড়া একই মামলায় অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় অপর দু'জনকে বেকসুর খালাস দেওয়া হয়।

রাষ্ট্রপক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন আদালতের স্পেশাল পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) অ্যাডভোকেট আতিকুজ্জামন নাসিম। আসামিপক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট সিরাজী শওকত সালেহীন এলেন।

বিডি-প্রতিদিন/ ০৬ জুন ১৬/ সালাহ উদ্দীন

 




আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow