Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বুধবার, ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : ১৭ জুন, ২০১৬ ১৭:৩১
'বানর রক্ষায় আইন থাকলেও হিন্দু রক্ষায় আইন নেই'
অনলাইন ডেস্ক
'বানর রক্ষায় আইন থাকলেও হিন্দু রক্ষায় আইন নেই'

দেশে বানর, কচ্ছপ রক্ষার আইন থাকলেও হিন্দু সম্প্রদায়কে রক্ষায় কোনো আইন নেই বলে অভিযোগ করেছেন বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু মহাজোটের মহাসচিব গোবিন্দ্র চন্দ্র প্রামাণিক।

শুক্রবার দুপুরে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) গোলটেবিল মিলনায়তনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ অভিযোগ করেন।

গোবিন্দ চন্দ্র প্রামাণিক বলেন, ‘হাজার বছরের নির্যাতন নিপীড়নে ১০০ ভাগ হিন্দু থেকে বর্তমানে আমরা ৮ দশমিক ৫ ভাগে এসে পৌঁছেছি। প্রতিদিনই দেশের কোনো না কোনো স্থানে হিন্দু বাড়িঘর জমি দখল, ভয়-ভীতি প্রদর্শন করে দেশত্যাগে বাধ্যকরণ, হত্যা, ধর্মান্তকরণ, মঠ মন্দির, প্রতিমা ভাঙচুর, মহিলাদের শ্লীলতাহানী ও কিশোরী অপহরণ চলছেই।’

তিনি বলেন, ‘গত কয়েক দিনের মধ্যেই পটুয়াখালীর বাউফলে মা ও মেয়েকে ধর্ষণ, পাবনা সৎসংঘের পুরোহিত নিত্যরঞ্জন পান্ডে, ঝিনাইদহের পুরোহিত আনন্দ গোপাল গাঙ্গুলি, গোপালগঞ্জের সাধু পরমানন্দ রায়, টাংগাইলের নিখিল জোয়ার্দার, নেত্রকোনার অর্জুন বিশ্বাস, গোবিন্দগঞ্জের তরুণ দত্তকে হত্যা করা হয়েছে। আইএস এর দায় স্বীকার ও একই সঙ্গে খুনিচক্রের কোনো হদিস না পাওয়ায় দেশে এক ভয়াবহ আতঙ্ক বিরাজ করছে।’

‘আমি হেড অব গভর্নমেন্ট, সব তথ্য নিশ্চই আমার কাছে আছে’ সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রীর এমন বক্তব্যের কথা উল্লেখ করে তিনি আরো বলেন, ‘আমরাও বিশ্বাস করি সব তথ্য আপনার কাছে আছে। দয়া করে চেয়ারের দিকে না তাকিয়ে আমাদেরকে বাঁচান। খুনি গ্রেফতার না হওয়া এবং শাস্তি না হওয়ায় জনগণ বিশ্বাস করতে বাধ্য হচ্ছে, সরকার ইচ্ছে করেই এই খুনি চক্রের মূলোৎপাটন করছে না।’

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন সংগঠনটির সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট সুবাস সাহা, ড. অচিন্ত কুমার মণ্ডল, সদস্য অ্যাডভোকেট দীনবন্ধু রায় প্রমুখ।

বিডি-প্রতিদিন/ ১৭ জুন ১৬/ সালাহ উদ্দীন

 




আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow