Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বুধবার, ১৮ জানুয়ারি, ২০১৭

প্রকাশ : ১৮ জুলাই, ২০১৬ ১৭:৪৯
আপডেট : ১৮ জুলাই, ২০১৬ ১৭:৫০
চট্টগ্রামে ৫ হাজার শিক্ষার্থী ইএমএস'র আওতায়
নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম:
চট্টগ্রামে ৫ হাজার শিক্ষার্থী ইএমএস'র আওতায়

শিক্ষার্থীদের পূর্ণাঙ্গ নজরদারির আওতায় আনতে নগরীর ৯টি প্রতিষ্ঠানে চালু করা হয়েছে অনলাইন 'এডুকেশন ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম' (ইএমএস)।

এর মাধ্যমে নগরের ৯টি সরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মোট ৫ হাজার ১৩০ জন শিক্ষার্থী, ২১১ জন শিক্ষক ও ৫৩ জন কর্মকর্তা-কর্মচারি ইএমএস সিস্টেমের আওতায় আসল।

সোমবার সকাল সাড়ে ১০টায় চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে বিভাগীয় কমিশনার রুহুল আমীন এ কার্যক্রম উদ্বোধন করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক মেজবাহ উদ্দিন। সভায় ইএমএস সিস্টেম বিষয়ে পাওয়ার পয়েন্ট উপস্থাপন করেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (এলএ) দৌলতুজ্জামান খাঁন।  

বিভাগীয় কমিশনার রুহুল আমীন বলেন, বর্তমানে যেসব জঙ্গিবাদী কর্মকাণ্ড ঘটছে তা নিয়ন্ত্রণে এ উদ্যোগ। এর মাধ্যমে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রকৃত অবস্থা, শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের উপস্থিতি নজরে আসবে। এর সূত্র ধরে আমরা সামনে এগুতে পারব।

জেলা প্রশাসক মেজবাহ উদ্দিন বলেন, আজ ৯টি প্রতিষ্ঠানে ইএমএস সিস্টেম চালু করেছি। এর টেকনোলজিক্যাল সাপোর্ট আমরা দেব। আগামী ছয় মাসের মধ্যে প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এই সিস্টেম চালু করার উদ্যোগ পরিকল্পনা আছে। এর মাধ্যমে ঘরে বসে মা-বাবা জানবেন ছেলে স্কুলে গেছে কিনা, পরীক্ষায় সে কি ফলাফল পেল।

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (এলএ) দৌলতুজ্জামান খাঁন বলেন, ইএমএস এর মাধ্যমে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের বায়োমেট্রিক অনলাইন হাজিরা ব্যবস্থাপনা, অনিয়মিত শিক্ষার্থীদের আলাদা তালিকা, শিক্ষার্থীদের পূর্ণাঙ্গ প্রগ্রেস রিপোর্ট তৈরির ব্যবস্থা, ফলাফল তৈরি ও প্রকাশের ব্যবস্থা, অনলাইন পেমেন্ট সিস্টেম, স্বয়ংক্রিয় উপস্থিতি এসএমএস সিস্টেম, প্রত্যেক শিক্ষার্থীর যাবতীয় তথ্য যেমন হাজিরা, ফলাফল, বাড়ির কাজ, বকেয়া ইত্যাদিসহ স্টুডেন্ট পোর্টাল এবং শিক্ষক পোর্টালসহ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সার্বিক ব্যবস্থাপনার প্রায় সকল মডিউলসহ থাকবে।

প্রসঙ্গত, ইএমএস হলো শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসমূহের দৈনন্দিন কার্যক্রম সার্বক্ষণিক পরিপূর্ণ নজরদারির আওতায় রাখার একটি অনলাইনভিত্তিক সিঙ্গেল প্লাটফর্ম। একটি মাত্র প্লাটফর্ম ব্যবহার করে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো ‘ইএমএস’ এর মাধ্যমে তদারকি করা যাবে। ফিঙ্গারপ্রিন্ট ও প্রক্সিমিটি কার্ড উভয় মাধ্যমেই এটি কাজ করবে।

বিডি-প্রতিদিন/ ১৮ জুলাই ১৬/ সালাহ উদ্দীন

 

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow