Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ১৮ জুলাই, ২০১৬ ২০:২৯
আপডেট :
দুই সন্তানকে বিষ খাইয়ে বাবার আত্মহত্যা
নাজমুল হুদা, সাভার :
দুই সন্তানকে বিষ খাইয়ে বাবার আত্মহত্যা

আশুলিয়ায় নিজের দুই সন্তানকে নিজ হাতে বিষ পান করানোর পর বাবা নিজেও বিষ খেয়ে আত্মহত্যা করেছেন।

সোমবার সন্ধ্যায় আশুলিয়ার কুটুরিয়া এলাকার আমতলা মহল্লায় নজরুলের ভাড়াটিয়া বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। পরে আশঙ্কাজনক অবস্থায় স্থানীয়রা তাদেরকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করলে বাবা ও এক ছেলেকে মৃত ঘোষণা করেন কর্তব্যরত চিকিৎসক।

নিহতরা হচ্ছে, দিনাজপুর সদর এলাকার নিতাইয়ের ছেলে মোহন লাল সিল (৩০) ও তার ৭ বছরের শিশু ছেলে মানিক। এ ঘটনায় বিষ পান করা অপর শিশু রতনের (৪) অবস্থাও আশঙ্কাজনক।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, আশুলিয়ার আমতলা মহল্লায় মোহন লাল সিল তার দুই ছেলে, এক মেয়ে ও স্ত্রীকে নিয়ে নজরুলের বাড়িতে ভাড়া বাড়িতে থাকতেন। তবে বিয়ের পর থেকেই তাদের মধ্যে পারিবারিক কলহের কারণে ঝগড়া-বিবাধ লেগেই থাকতো। আর এ কারণেই সোমবার সন্ধ্যায় মোহন লাল সিল তার দুই ছেলেকে বিষ পান করানোর পর নিজে বিষ পান করে আত্মহত্যা করেন। পরে স্থানীয়রা দুই সন্তানকে নিয়ে বাবার কক্ষে পড়ে থাকতে দেখে তাদেরকে উদ্ধার করে এনাম মেডিকেল কলেজ অ্যান্ড হাসপাতালে নিয়ে আসে। তবে কর্তব্যরত চিকিৎসক বাবা মোহন লাল সিল ও বড় ছেলে মানিককে মৃত ঘোষণা করে। এছাড়াও এ ঘটনায় আশঙ্কাজনক অবস্থায় অপর শিশু রতন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। খবর পেয়ে আশুলিয়া খানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে।

নিহত মহন লাল সিলের স্ত্রী শেপালী জানান, প্রায় দশ বছর আগে তাদের বিয়ে হয়। তিনি স্থানীয় একটি পোশাক কারখানায় চাকুরী করেন। আর তার স্বামী সেলুনে কাজ করতেন। সোমবার দুপুরে তিনি তার দুই ছেলে ও এক মেয়েকে খাবার খাইয়ে কারখানায় কাজের উদ্দেশ্যে চলে যায়। পরে সন্ধ্যার দিকে বাড়িতে এসে তিনি এ ঘটনা জানতে পারেন। তবে বিয়ের পর থেকে তাদের মধ্যে ঝগড়া-বিবাধ লেগে থাকলেও এ কারণেই তার স্বামী আত্মহত্যা করেছে কিনা এ বিষয়ে নিশ্চিত করে তিনি বলতে পারেনি।

এব্যাপারে আশুলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মহসিনুল কাদির বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে বিভিন্ন আলামত সংগ্রহ করেছে। তবে কি কারণে এটি হত্যা না আত্মহত্যা বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এছাড়াও নিহত বাবা ও তার ছেলের মৃতদেহ উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ অ্যান্ড হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় আশুলিয়া থানায় একটি মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলেও তিনি জানান।

বিডি-প্রতিদিন/ ১৮ জুলাই ১৬/ সালাহ উদ্দীন

 

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow