Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ২২ অক্টোবর, ২০১৭

ঢাকা, রবিবার, ২২ অক্টোবর, ২০১৭
প্রকাশ : ৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১৫:০৪ অনলাইন ভার্সন
আপডেট :
ঘোষণা ছাড়াই হঠাৎ কর্মবিরতিতে রামেক ইন্টার্ন চিকিৎসকরা
নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী

ঘোষণা ছাড়াই হঠাৎ কর্মবিরতিতে রামেক ইন্টার্ন চিকিৎসকরা
ফাইল ছবি

কোন ঘোষণা ছাড়াই কর্মবিরতিতে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ইন্টার্ন চিকিৎসকরা। মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭টার পর থেকে ইন্টার্ন চিকিৎসকরা হাসপাতালের ওয়ার্ডে যায়নি বলে জানান রোগীর স্বজনরা।

তারা বলছেন, চিকিৎসকরা সন্ধ্যার আগে যা সেবা দিয়েছেন, রাতে কেউ আসেনি রোগীদের কাছে।

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এএফএম রফিকুল ইসলাম জানান, কর্মবিরতি নয়। তবে ইন্টার্ন চিকিৎসকরা কোন কোন ওয়ার্ডে আছে, আবার নেই। মঙ্গলবারের বিষয়টি নিয়ে একটু সমস্যা। তারা ইন্টার্ন চিকিৎসকদের সঙ্গে বসে সমাধানের উদ্যোগ নিয়েছেন।

নগরীর রাজপাড়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আমান উল্লাহ জানান, ইন্টার্ন চিকিৎসককে লাঞ্ছিতের ঘটনায় দুইজনকে ইতিমধ্যে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে।

এর আগে, মঙ্গলবার বিকেল চারটার দিকে রামেক হাসপাতালে ৭ নম্বর ওয়ার্ডে নগরীর সাধুর মোড় রাণীনগর এলাকার চাঁদ সরদারের ছেলে শাহীন (৩৫) রামেক হাসপাতালের ৭ নম্বর ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়। রোগীর মারা যাওয়া নিয়ে স্বজনদের সঙ্গে ইন্টার্ন চিকিৎসকদের হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে। রোগীর স্বজনদের দাবি, দায়িত্বে অবহেলা এবং সুচিকিৎসা না হওয়ায় শাহীনের মৃত্যু হয়।

জানা যায়, দায়িত্বে অবহেলার কথা নিয়ে ৭ নম্বর ওয়ার্ডের ইন্টার্ন চিকিৎসক মাহাফুজুর রহমানের সঙ্গে নিহতের স্বজনদের কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। পরে রামেক হাসপাতালের পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে রোগীর স্বজন রানীনগর এলাকার সাইদুর রহমানের ছেলে সিথিল (২৫) এবং আহমদ আলীর ছেলে বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তা আবু বকরকে আটক করে নিয়ে আসে। পরে তাদের রাজপাড়া থানায় নিয়ে যায়। এরপর থেকেই কোনো ঘোষণা ছাড়াই কাজ বন্ধ করে দেন ইন্টার্ন চিকিৎসকরা।


বিডি-প্রতিদিন/০৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭/মাহবুব

আপনার মন্তব্য

up-arrow