Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ২১ অক্টোবর, ২০১৭

ঢাকা, শনিবার, ২১ অক্টোবর, ২০১৭
প্রকাশ : ২০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১৮:২৫ অনলাইন ভার্সন
আপডেট :
গাজীপুরে স্ত্রী হত্যায় ভিক্ষুক স্বামীর যাবজ্জীবন
গাজীপুর প্রতিনিধি:
গাজীপুরে স্ত্রী হত্যায় ভিক্ষুক স্বামীর যাবজ্জীবন

গাজীপুরের টঙ্গীর আরিচপুর এলাকায় স্ত্রী হত্যার দায়ে ভিক্ষুক স্বামীকে যাবজ্জীবন কারাদন্ডের রায় দিয়েছেন আদালত। সোমবার দুপুরে গাজীপুর জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক এ কে এম এনামুল হক এ রায় প্রদান করেন।

রায়ে একই সাথে আসামিকে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

দণ্ডপ্রাপ্ত মাইনুদ্দিন শেরপুর জেলার নালিতাবাড়ি থানার গোবিন্দ কালিনগর থানার জাফর আলীর ছেলে।
 
গাজীপুর আদালতের পিপি অ্যাডভোকেট হারিছ উদ্দিন আহম্মদ জানান, টঙ্গীর আরিচপুর এলাকার গাজী নাজিমুদ্দিনের বাড়িতে হাজেরা বেগম তার দুই মেয়ে ও মেয়ের জামাইকে নিয়ে ভাড়াটিয়া হিসেবে বসবাস করছিলেন। ছোট মেয়ে নাজমুন্নাহার স্বপ্নার স্বামী মাইনুদ্দিন এলাকায় ভিক্ষা করতো। গত ২০১০ সালের ২৯ জুন হাজেরা বেগম বাজার করতে গেলে অভিযুক্ত মাইনুদ্দিন ঘরের দরজা বন্ধ করে স্বপ্নাকে কাঠের পিঁড়ি ও ইট দিয়ে আঘাত করে হত্যা করে। পরে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মাইনুদ্দিনকে গ্রেফতার করে। এ ঘটনায় নিহত স্বপ্নার মা হাজেরা বেগম বাদি হয়ে টঙ্গী থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এস আই মো. রুহুল আমিন তদন্ত শেষে আদালতে অভিযোগ পত্র জমা দেন। ২০১১ সালের ২৪ মে এ মামলায় আদালতে অভিযোগ গঠন করা হয়।

আদালত ৫ জন স্বাক্ষীর সাক্ষ্য এবং যুক্তিতর্ক শেষে সোমবার মাইনুদ্দিনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড এবং পাঁচ হাজার টাকা জরিমানার রায় প্রদান করেন। রায় ঘোষণার সময় আসামি মাইনুদ্দিন আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

রাষ্ট্রপক্ষে মামলা পরিচালনা করেন পিপি অ্যাডভোকেট হারিছ উদ্দিন আহম্মদ এবং আসামি পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট ওয়াহিদুজ্জামান আকন (তমিজ)।


বিডি-প্রতিদিন/এস আহমেদ

আপনার মন্তব্য

up-arrow