Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৪ আগস্ট, ২০১৭

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৪ আগস্ট, ২০১৭
প্রকাশ : ১৬ মার্চ, ২০১৭ ২০:৫২ অনলাইন ভার্সন
আপডেট :
শিক্ষিকাকে পেটানো সেই বখাটের আদালতে স্বীকারোক্তি
অনলাইন ডেস্ক
শিক্ষিকাকে পেটানো সেই বখাটের আদালতে স্বীকারোক্তি

চট্টগ্রামের পটিয়া উপজেলার দক্ষিণ ভূর্ষি ‌ইউনিয়নের পূর্ব ডেঙ্গামারা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা মিসফা সুলতানার (২৫) ওপর হামলাকারী বখাটে আহসান উল্লাহ টুটুল (৩০) আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী দিয়েছে।

বৃহস্পতিবার বিকালে পটিয়ার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মহিদুল ইসলামের আদালতে টুটুল এ স্বীকারোক্তি দেন।

এর আগে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য টুটুলকে পুলিশ ৫ দিনের রিমান্ডে নেওয়ার  আবেদন জানায়। কিন্তু এ সময় সে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিলে আদালত রিমান্ড মঞ্জুর করেননি।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও পটিয়া থানার এসআই মো. কামাল হোসেন বলেন, শিক্ষিকা মিসফা সুলতানার ওপর হামলার ঘটনায় ফৌজদারী কার্যবিধি মতে, টুটুল আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী দিয়েছে। এ ব্যাপারে আদালতের নির্দেশনা অনুযায়ী পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে।  

প্রসঙ্গত, গত মঙ্গলবার সকালে শিক্ষিকা মিসফা সুলতানার ওপর বখাটে টুটুলের হামলায় দুই ‍হাত এবং বাম পা ভেঙে যায়। পরে পটিয়া থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে ওইদিন দুপুরেই তাকে গ্রেফতার করে। আটক টুটুল একই এলাকার আনোয়ার হোসেনের ছেলে। আহত শিক্ষিকাকে হত্যার চেষ্টার অভিযোগে তার বাবা সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার নুর মোহাম্মদ বাদি হয়ে থানায় মঙ্গলবার রাতেই আহসান উল্লাহ টুটুলের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেন। বর্তমানে চমেক হাসপাতালের ২৬ নম্বর ওয়ার্ডে মিসফা সুলতানা চিকিৎসাধীন আছেন।

বিডি প্রতিদিন/ সালাহ উদ্দীন

আপনার মন্তব্য

up-arrow