Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ১৬ মে, ২০১৮ ১৯:৪৪ অনলাইন ভার্সন
শত তরুণের কণ্ঠে ভারত ভ্রমণের অভিজ্ঞতা
নিজস্ব প্রতিবেদক
শত তরুণের কণ্ঠে ভারত ভ্রমণের অভিজ্ঞতা
bd-pratidin

কেমন ছিলো আটদিনের ভারত ভ্রমণ? ভারতীয় সরকারের আমন্ত্রণে বাংলাদেশি শত তরুণের এই অভিজ্ঞতা বিনিময়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে ‘ইন্ডিয়া থ্রো দা আইস অব বাংলাদেশ’ শীর্ষক মতবিনিময় সভা।

গতকাল সন্ধ্যায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে বিজনেস ফ্যাকালটি অডিটোরিয়ামে অভিজ্ঞতা বিনিময় এবং সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।


ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ডিবেটিং সোসাইটির সভাপতি আবু বক্কর সিদ্দিক প্রিন্সের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকাস্থ ভারতীয় হাইকমিশনের দ্বিতীয় সচিব (প্রেস, ইনফরমেশন অ্যান্ড কালচার) বিশাল জ্যোতি দাস। অনুষ্ঠানে ইয়ুথ ডেলিগেশন টিমের শত তরুণের পক্ষে বক্তব্য রাখেন ধ্রুবতারা ইয়ুথ ডেভেলপমেন্ট ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক অমিয় প্রাপণ চক্রবর্তী অর্ক এবং বাংলাদেশ প্রতিদিনের নিজস্ব প্রতিবেদক জয়শ্রী ভাদুড়ী।
অনুষ্ঠানে আটদিনের ভারত সফরের অভিজ্ঞতা, প্রাপ্তি এবং সম্ভবনার জায়গাগুলো তুলে ধরেন বক্তারা। এসময় প্রশ্নত্তোর পর্বে শিক্ষার্থীরা কিভাবে এই ডেলিগেশনে অংশগ্রহণ করা যায় সেবিষয়ে জানতে চান। তাদের প্রশ্নে উত্তরে বিশাল জ্যোতি দাস জানান, ২০১২ সাল থেকে ছয় বছর ধরে বাংলাদেশ থেকে ১শ জন তরুণ ভারত সরকারের আমন্ত্রণে ভারত সফর করে থাকে। এর মধ্যে ৫০ জন বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী এবং বাকী ৫০ জন বিভিন্ন পেশাজীবী মানুষ থাকেন। ভারতীয় হাইকমিশন ঢাকার ফেসবুক পেজে এই সফরে আগ্রহীদের জন্য আবেদনপত্র চাওয়া হয়। কয়েক হাজার আবেদন পত্র প্রতিবছরই জমা হয়। এর মধ্যে বিভিন্ন ক্ষেত্রে সম্ভবনাময় এবং সাফল্য অর্জনকারী একশ জন তরুণকে বাছাই করা হয়। এবছরও জুলাই মাসের শেষ সপ্তাহের দিকে এই আবেদনপত্র আহ্বান করা হতে পারে বলে জানান তিনি।

অনুষ্ঠান শেষে মনোমুগ্ধকর সাংস্কৃতিক সন্ধ্যায় সংগীত পরিবেশন করেন এসময়ের জনপ্রিয় সংগীত শিল্পী রিয়াদ হাসান, খৈয়াম সানু সন্ধি এবং ওয়াহিদা রহমান।

বিডি-প্রতিদিন/ সালাহ উদ্দীন

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow