Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ১৬ অক্টোবর, ২০১৮ ২১:৫৬ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ১৬ অক্টোবর, ২০১৮ ২২:০১
নারায়ণগঞ্জে ১৩ বছরের কিশোরীকে বাসা থেকে তুলে নিয়ে গণধর্ষণ
নারায়ণগঞ্জ ও আড়াইহাজার প্রতিনিধি:
নারায়ণগঞ্জে ১৩ বছরের কিশোরীকে বাসা থেকে তুলে নিয়ে গণধর্ষণ
প্রতীকী ছবি

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে ১৩ বছরের এক কিশোরীকে বাসা থেকে তুলে নিয়ে গণধর্ষনের অভিযোগ উঠেছে। গত সোমবার সন্ধ্যা ৭টায় টায় উপজেলার গোপালদী পৌরসভার মোল্লারচর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আজ মঙ্গলবার দুপুরে এ ব্যাপারে কিশোরীর মা বাদী হয়ে ৩ জনের নাম উল্লেখ এবং অজ্ঞাত আরও একজনকে আসামি করে থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

আড়াইহাজার থানার ওসি এম এ হক জানান, উপজেলার মোল্লারচর গ্রামের কিশোরীর মা বাজারে পিঠা বানিয়ে রাত পর্যন্ত বিক্রি করে থাকে। আর বাবা অসুস্থ অবস্থায় বিছানায়। সোমবার তার মা কাজ করতে বাড়ি থেকে বেরিয়ে পড়ে। ওই দিন সন্ধা ৭টায় পরিবারের সদস্যদের জন্য কিশোরী চুলায় রান্না বসায়। এই সুযোগে ওই এলাকার আব্বাসের ছেলে শেখ ফরিদ (২০), নাজিমউদ্দিনের ছেলে সাইফুল ইসলাম (২২), ইব্রাহীমের ছেলে সফিকুল (২০) ও অজ্ঞাত আরও একজন তাদের বাসায় যায়। এরপর কিশোরীর মুখে লুঙ্গি চেপে ধরে পার্শ্ববর্তী আজিজ মাস্টারের পরিত্যক্ত বাগানের পুকুর পাড়ে নিয়ে জোরপূর্বক পালাক্রমে ধর্ষণ করে অজ্ঞান অবস্থায় মেয়েটি ফেলে পালিয়ে যায়। কয়েক ঘণ্টা পর তার জ্ঞান ফিরলে সে বাড়িতে এসে তার মাকে ঘটনাটি জানালে তাকে দ্রুত উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক ধর্ষিতার সংকাটাপন্ন অবস্থার কারণে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে। অভিযুক্ত শেখ ফরিদের বাবা আব্বাস আলী মেয়েটিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজে নিয়ে যায়। সেখান থেকে সে মেয়েটিকে ভর্তি না করিয়ে বাড়িতে নিয়ে আসে। সকালে ধর্ষিতা মেয়েটির অবস্থা আরো অবনতি হলে পুনরায় আড়াইহাজার হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। পরে আড়াইহাজার থেকে আবারো নারায়ণগঞ্জ ১০০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। 

আড়াইহাজার থানার ওসি আরো জানান, থানায় মামলা হয়েছে। আসামিদের গ্রেফতারের জন্য চেষ্টা চলছে।

বিডি-প্রতিদিন/১৬ অক্টোবর, ২০১৮/মাহবুব

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow