Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ১৩ নভেম্বর, ২০১৮ ১৯:৩১ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ১৩ নভেম্বর, ২০১৮ ১৯:৩৬
সেই ৭ টুকরো লাশের পরিচয় শনাক্ত
সাভার প্রতিনিধি
সেই ৭ টুকরো লাশের পরিচয় শনাক্ত

সাভার আশুলিয়ার নিশ্চিন্তপুর এলাকায় উদ্ধারকৃত মস্তকবিহীন সাত টুকরো লাশের পরিচয় মিলেছে। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে মানিক নামে এক ব্যক্তিকে আটক করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার দুপুরে নিহতের স্ত্রী স্বপ্না বেগম আশুলিয়া থানায় এসে স্বামীর মৃতদেহটি শনাক্ত করেন। 

এদিকে আটক মানিকের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতেও নিহতের পরিচয় নিশ্চিত করেছে পুলিশ। হতভাগ্য ওই নিহত ব্যক্তি হলেন মেহেদি হাসান টিপু। সে যশোরের বাঘারপাড়া থানাধীন অন্তরামপুর গ্রামের আবু বক্কর সিদ্দিকির ছেলে। সে স্থানীয় একটি পোশাক কারখানায় কাজ করতেন। 

আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক মনিরুজ্জামান মোল্লা বলেন, গত ৯ নভেম্বর বিকেলে বাসা থেকে বের হয়ে নিখোঁজ হন টিপু। এ ঘটনায় ১০ নভেম্বর নিহতের স্ত্রী আশুলিয়া থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী দায়ের করেন। এদিকে সোমবার সকালে আশুলিয়ার নিশ্চিন্তপুর এলাকার আঞ্চলিক সড়ক থেকে পলিথিনের ব্যাগে মোড়ানো মস্তকবিহীন সাত টুকরো লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। 

পুলিশ নিখোঁজ টিপুর স্ত্রীকে মৃতদেহটি উদ্ধারের বিষয়ে অবহিত করেন। খবর পেয়ে স্ত্রী সম্পা বেগম আশুলিয়া থানায় হাজির হয়ে স্বামীর বিষয়ে বিবরণ দেন পুলিশকে। এ সময় তার দেয়া বিবরণের সাথে মিলিয়ে নিহতের পরিচয় শনাক্ত করা হয়।

গত ৯ নভেম্বর মুঠোফোনে কল করে নিহত টিপুকে বাসা থেকে ডেকে নিয়ে যায় আটক মানিক। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে অপহরণের রাতেই টিপুকে হত্যা করা হয়েছে। ঘটনার সাথে জড়িত অপর আসামিদের ধরতে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। তবে ঘটনাটি কি শুধু টাকার জন্য, না প্রেমঘটিত কোনো বিষয় তা তদন্ত সাপেক্ষে নিশ্চিত হওয়া যাবে বরে জানান পুলিশ উপ-পরিদর্শক মনিরুজ্জামান মোল্লা। 

বিডি-প্রতিদিন/বাজিত হোসেন

আপনার মন্তব্য

up-arrow