Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ১৫ নভেম্বর, ২০১৮ ১৭:১৭ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ১৫ নভেম্বর, ২০১৮ ১৭:২১
গাজীপুরে প্রকাশ্য দিবালোকে মরিচের গুঁড়া ছিটিয়ে কুপিয়ে হত্যা
গাজীপুর প্রতিনিধি :
গাজীপুরে প্রকাশ্য দিবালোকে মরিচের গুঁড়া ছিটিয়ে কুপিয়ে হত্যা

গাজীপুর সিটি কর্পোরেশেনের কাউলতিয়ার জেলারপাড় নাগপাড়া এলাকায় বৃহস্পতিবার দুপুরে মরিচের গুঁড়া ছিটিয়ে প্রকাশ্য দিবালোকে দা দিয়ে কুপিয়ে এক ব্যক্তিকে খুন ও তার ভাইকে গুরুতর জখম করেছে সন্ত্রাসীরা। নিহতের নাম মো. শহিদুল ইসলাম (৪৫)। তিনি স্থানীয় জয়নাল শিকদারের ছেলে। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন নিহতের ছোট ভাই আব্দুর রশিদ (৩৮)।  

নিহতের ছেলে সুজন আল মামুন জানান, সরকারী জমি থেকে গাছ কাটাকে কেন্দ্র করে এক বছর আগে স্থানীয় আক্তার হোসেন গংদের সঙ্গে শহিদুল ইসলাম ও রশিদদের মারামারির ঘটনা ঘটে। এ নিয়ে দুই পরিবারের মধ্যে শত্রুতা চলতে থাকে। যা পরবর্তীতে আদালত পর্যন্ত গড়ায়। বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে আব্দুর রশিদ জোলারপাড় বাজার থেকে বাড়ি যাওয়ার পথে নাগপাড়া এলাকায় পৌঁছালে পূর্ব থেকে ওঁৎ পেতে থাকা প্রতিপক্ষ আক্তার হোসেন ও তার সহযোগীরা পথরোধ করে রশিদকে কুপায়। পরে তার বড়ভাই শহিদুল ছোট ভাই রশিদকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়ার সময় প্রতিপক্ষরা দুই ভাইয়ের চোখে মুখে মরিচের গুড়া ছিটিয়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাতাড়ি কোপায়। এ সময় মারা গেছে ভেবে তারা আহতদের ফেলে রেখে চলে যায়। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে গাজীপুরের শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আনার পথে শহিদুল ইসলাম মারা যান। গুরুতর আহত আ. রশিদকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের সদর থানার ওসি সমীর চন্দ্র সূত্রধর ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, পূর্ব শত্রুতার জেরে প্রতিপক্ষের লোকজন কুপিয়ে শহিদুল ইসলাম নামে একজনকে হত্যা হত্যা করেছে বলে জানা গেছে। এ ঘটনায় জিঙ্গাসাবাদের জন্য রমেলা নামে একজনকে আটক করা হয়েছে।

বিডি-প্রতিদিন/১৫ নভেম্বর, ২০১৮/মাহবুব

আপনার মন্তব্য

up-arrow