Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ২১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০৩:১৯
আপডেট : ২১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ১৪:১৭

পোশাক শ্রমিককে গণধর্ষণের অভিযোগে কলেজ শিক্ষার্থী আটক

নাজমুল হুদা, সাভার

পোশাক শ্রমিককে গণধর্ষণের অভিযোগে কলেজ শিক্ষার্থী আটক
প্রতীকী ছবি

সাভারে এক পোশাক শ্রমিককে গণধর্ষণের অভিযোগে এক কলেজ শিক্ষার্থীকে আটক করেছে পুলিশ।

আটক ওই শিক্ষার্থীর নাম তুহিন (২১)। সে সাভার সরকারি বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের একাউন্টিং বিভাগের শিক্ষার্থী ও সাভারের তেঁতুলঝোড়া ইউনিয়নের হেমায়েতপুরের একতা হাউজিং এলাকার আব্দুল হকের ছেলে।

বুধবার রাতে একতা হাউজিং থেকেই তুহিনকে আটক করে পুলিশ।

পুলিশ জানায়, গত ১৪ ফেব্রুয়ারি হেমায়েতপুরের নতুনপাড়া এলাকার জিহান গার্মেন্ট এর ওই পোশাক শ্রমিককে একতা হাউজিং এলাকায় ডেকে নেন একই গার্মেন্টস এর লাইন চিফ রাকিব। এ সময় রাকিব ও রাকিবের বন্ধু তুহিনসহ চার যুবক ওই গার্মেন্টস শ্রমিককে মুখ বেঁধে গণধর্ষণ করে ও ধর্ষণের ভিডিও মোবাইল ফোনে ধারণ করে ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দেয়।

ধর্ষণকারীরা এসময় ওই নির্যাতিতা গার্মেন্টস শ্রমিকের কাছে এক লাখ ১০ হাজার টাকা মুক্তিপণ দাবি করে। কিন্তু ওই নারী শ্রমিক বাড়ি থেকে মুক্তিপণের টাকা আনতে অস্বীকার করায় তারা তাকে পিটিয়ে আহত করে। পরে গভীর রাতে তার হাতে বিশ টাকা দিয়ে হেমায়েতপুর বাসস্ট্যান্ড থেকে সাভারে আসার জন্য একটি বাসে উঠিয়ে দেয় তারা।

ওই পোশাক শ্রমিক বাড়িতে এসে ঘটনার দু’দিন পর রাকিবকে এক নম্বর ও তুহিনকে দুই নম্বর আসামি করে চারজনের নাম উল্লেখ করে সাভার মডেল থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেন। এ ঘটনায় বুধবার রাতে ওই এলাকায় অভিযান চালিয়ে দুই নম্বর আসামি তুহিনকে আটক করে পুলিশ।

এ বিষয়ে সাভার মডেল থানার ট্যানারি পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ (ওসি) গোলাম নবী বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেন, গণধর্ষণের ঘটনায় একজনকে আটক করা হয়েছে মামলার। বাকি আসামিদেরকেও আটক করা হবে। তারা গোয়েন্দা নজরদারিতে রয়েছে।

বিডি প্রতিদিন/কালাম


আপনার মন্তব্য