Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শুক্রবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : ৬ জুন, ২০১৬ ১১:৩১
অবৈধ পার্কিংয়ে যানজটের দুর্ভোগ
নিজস্ব প্রতিবেদক
অবৈধ পার্কিংয়ে যানজটের দুর্ভোগ

রাজধানীর রাজপথে অবৈধ গাড়ি পার্কিংয়ে দুঃসহ যানজটের দুর্ভোগ বাড়ছে নগরবাসীর। পরিকল্পিত পার্কিং ব্যবস্থা গড়ে না ওঠায় ব্যস্ত সময়েও রাস্তা দখল করে গাড়ি পার্কিং করা হয়।

অন্যদিকে আবাসিক ও বাণিজ্যিক ভবনগুলোর নকশা নির্ধারিত পার্কিং সুবিধা করে বাণিজ্যিক কাজে ব্যবহার করায় রাস্তাই হয়ে উঠেছে গাড়ি রাখার অন্যতম জায়গা। ফলে রাজপথে পার্কিং নৈরাজ্য বন্ধ হচ্ছে না।

নগর বিশেষজ্ঞরা বলেছেন, যানজট নিরসনে গুরুত্বপূর্ণ এলাকায় পরিকল্পিত পার্কিং ব্যবস্থা গড়ে তোলার বিকল্প নেই। পার্কিং নৈরাজ্যের সঙ্গে একশ্রেণির ইজারাদার, পুলিশ ও রাজনৈতিক সুবিধাভোগীর স্বার্থের সম্পর্ক থাকায় এটা বন্ধ করা যাচ্ছে না। নগরীতে যে কয়েকটি পার্কিং স্পেস গড়ে উঠেছে সেগুলোও কার্যকর করা যাচ্ছে না। ব্যাংকপাড়া দিলকুশায় সাধারণ বীমা টাওয়ারে ২০০৬ সালে পার্কিং ব্যবস্থা চালু করা হলেও সেখানে গাড়ি উঠছে না। অথচ মতিঝিল-দিলকুশার ব্যস্ত সড়কের দুই পাশে হাজার হাজার গাড়ি দিনভর রাখা হয়। এর পাশাপাশি ৩৭তলা সিটি সেন্টারেও প্রায় সাড়ে ৫০০ গাড়ি পার্ক করার ব্যবস্থা রয়েছে। সেখানেও গাড়ি উঠছে না।   

নগরীর ব্যস্ত এলাকার মূল সড়কে, শপিংমল ও সুপার মার্কেটের সামনে এলোপাতাড়ি গাড়ি পার্কিং করা হচ্ছে। ওইসব এলাকায় দিনের বেশির ভাগ সময় অসহনীয় যানজট লেগে থাকে, এতে নগরবাসীর অসহনীয় ভোগান্তি হচ্ছে।

এদিকে পার্কিং স্পেসের যথাযথ ব্যবহার না হওয়ায় নগরীর মার্কেট ও শপিংমলগুলোর সামনে অবৈধ পার্কিংয়ের পরিমাণ বেড়ে গেছে। রাস্তায় বেড়েছে যানজট। গাড়ি নিয়ে রাস্তায় বেরোলে কে কখন গন্তব্যে পৌঁছবে তার কোনো নিশ্চয়তা নেই। রাস্তা দখল করে গাড়ি পার্কিং নেওয়াটা এখন নগরীর যানজট বেড়ে যাওয়ার অন্যতম কারণ।

ঢাকা যানবাহন সমন্বয় কর্তৃপক্ষের (ডিটিসিএ) একজন শীর্ষ কর্মকর্তা বলেন, এসটিপি অনুসরণ করলে পার্কিং নিয়ে কোনো সমস্যা থাকবে না। রাস্তায় এত বেশি গাড়ি রাখারও কোনো দরকার হবে না। তবে মানুষের অভ্যাস খুব খারাপ। তারা নিয়ম মানতে চান না। বাড়ি বানাবেন কিন্তু গাড়ির জায়গা রাখবেন না, তা হয় না।

 

বিডি-প্রতিদিন/ ০৬ জুন, ২০১৬/ আফরোজ

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর
up-arrow