Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ৬ জুন, ২০১৬ ১২:০৫ অনলাইন ভার্সন
পাঠকের চিঠি
ঢাকার বাতাসে ধুলার দূষণ
হাসনাত কাইয়ুম, বনশ্রী

ঢাকার বাতাসে ধুলার দূষণ

রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় অবকাঠামো উন্নয়ন কর্মকাণ্ড বেড়ে যাওয়ায় বাতাসে ধুলার দূষণ ছড়িয়ে পড়েছে। শীতের পর দীর্ঘ উষ্ণতম সময়ে ধুলা ধূসরিত নগরবাসী ভোগান্তিতে পড়েছেন। এ ছাড়া যত্রতত্র খোঁড়াখুঁড়ির কারণে ঢাকার অধিকাংশ রাস্তা এখন ধুলায় পরিপূর্ণ। মানুষ নাকে-মুখে রুমাল চেপেও ধুলা থেকে রক্ষা পাচ্ছেন না। ভুক্তভোগী অনেকে পানি ছিটিয়ে ধুলা থেকে আত্মরক্ষার ব্যর্থ চেষ্টা করছেন। বর্ষাকালে এই ধুলার কারণেই পাকা রাস্তা কাদার মেঠো পথে পরিণত হয়! ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন কর্তৃপক্ষ ধুলা দূর করার বিষয়ে একরকম উদাসীন বলেই মনে হচ্ছে। 

রাজধানীর সড়ক ধুলামুক্ত করার জন্য জরুরি পদক্ষেপ নেওয়া প্রয়োজন। ঝাড়ু দিয়ে বা পানি ছিটিয়ে এ ধুলা দূর করা সম্ভব নয়। এ জন্য ধুলাশোষক গাড়ি আমদানি করা যেতে পারে। সরকার বিষয়টি ভেবে দেখতে পারে। 

এর আগে রাজধানী থেকে বেবিট্যাক্সি তুলে দিয়ে সিএনজিচালিত অটোরিকশা চালু করার পর দূষণ কিছুটা কমে গিয়েছিল। কিন্তু রাজপথের দূষণ আরও বেড়ে গেছে। গত কয়েক বছরে শুধু ঢাকার উত্তর-পশ্চিমে সাড়ে ৬০০ ইটভাটা তৈরি হয়েছে। এই ইটভাটাগুলো থেকে বায়ুদূষণ হচ্ছে। এ ছাড়া যানবাহনে নিম্নমানের ডিজেল ব্যবহৃত হচ্ছে, যা ব্যাপকভাবে বায়ুদূষণ ঘটাচ্ছে।

এদিকে ঢাকায় উন্মুক্ত জায়গা এবং জলাশয় কমে যাওয়ায় দূষণ নিয়ন্ত্রণ করা যাচ্ছে না। ঢাকার চারদিকে অনিয়ন্ত্রিতভাবে দালানকোঠা গড়ে উঠছে। নির্মাণসামগ্রী থেকে ধূলিকণা বাতাসে উড়ে বেড়াচ্ছে। বায়ুুদূষণ করছে। এসব বহুমুখী দূষণ থেকে নগরবাসীকে বাঁচাতে কার্যকর পদক্ষেপ নিতে হবে।    

 


বিডি-প্রতিদিন/ ০৬ জুন, ২০১৬/ আফরোজ

আপনার মন্তব্য

up-arrow