Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : রবিবার, ৫ জুন, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ৪ জুন, ২০১৬ ২৩:১৪
রংপুরে টিসিবি পণ্যের শুভ প্রভাব
শাহজাদা মিয়া আজাদ, রংপুর

খোলাবাজারে টিসিবির পণ্য বিক্রির প্রভাব পড়েছে রংপুরের পাইকারি ও খুচরা বাজারে। চিনি, ছোলা ও মসুর ডালের দাম কমেছে বস্তাপ্রতি ১০০-২০০ টাকা।

ব্যবসায়ীরা বলছেন, টিসিবির পণ্য বিক্রি অব্যাহত থাকলে এসব পণ্যের দাম আরও কমে যাবে।

টিসিবি রংপুর আঞ্চলিক কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, মহানগরে পাঁচটি পয়েন্টে এবং রংপুর বিভাগের জেলা শহরগুলোয় দুটি পয়েন্টে প্রতিদিন ট্রাকে করে চিনি ৪৮, ছোলা ৭০, মসুর ডাল ৯০ ও প্রতি লিটার সয়াবিন ৮০ টাকায় বিক্রি করছেন টিসিবি ডিলাররা। জেলার হাট-বাজারগুলোয় এসব বেশি দরে বিক্রি হওয়ায় টিসিবিরপয়েন্টগুলোয় ক্রেতার উপচে পড়া ভিড় লক্ষ্য করা গেছে। রংপুরের পাইকারি চিনির বাজার নবাবগঞ্জ বাজারের ব্যবসায়ী সিরাজুল ইসলাম জানান, শুক্রবার প্রতি বস্তা চিনির মূল্য ২০০ টাকা কমে গেছে। নগরীর জেলা পরিষদ মিনি সুপার মার্কেটের ব্যবসায়ী এরশাদ আলী জানান, ১০০-১২০ কেজির মসুর ডাল ৯০ আর ৮৫-৯০ টাকা কেজির ছোলা ৮০ টাকায় বিক্রি করা হচ্ছে। এদিকে রমজানে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের মূল্য বৃদ্ধি না করার ঘোষণা দিয়েছেন রংপুরের পাইকারি ব্যবসায়ীরা। গতকাল সকালে রংপুর চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি মিলনায়তনে চেম্বার নেতৃবৃন্দের সঙ্গে পাইকারি ব্যবসায়ীদের এক সভায় এ ঘোষণা দেওয়া হয়। চেম্বার সভাপতি আবুল কাশেম জানান, রমজানে রংপুরে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের সরবরাহ ও মজুদ পরিস্থিতি সন্তোষজনক রয়েছে। ফলে মূল্য বৃদ্ধির কোনো সম্ভাবনা নেই। তবে সভায় পণ্য পরিবহনে পুলিশি হয়রানি, চাঁদাবাজিসহ সব ধরনের বাধা বন্ধে সরকারের সহযোগিতা কামনা করা হয়।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow