Bangladesh Pratidin

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : বুধবার, ৮ জুন, ২০১৬ ০০:০০ টা আপডেট : ৭ জুন, ২০১৬ ২৩:১৯
২০১৫-১৬ অর্থবছরের সম্পূরক বাজেট পাস
নিজস্ব প্রতিবেদক

চলতি ২০১৫-১৬ অর্থবছরের জন্য ১৯ হাজার ৮০৩ কোটি ৬২ লাখ ৮৮ হাজার টাকার সম্পূরক বাজেট গতকাল সংসদে কণ্ঠভোটে পাস হয়েছে। সম্পূরক বাজেটের মাধ্যমে চলতি অর্থবছরে যে ৩৮ মন্ত্রণালয় বা বিভাগ বেশি খরচ করেছে, তার অনুমোদন দেওয়া হলো। এর আগে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত আগামী ৩০ জুন সমাপ্ত চলতি অর্থবছরের কার্য নির্বাহের জন্য সংযুক্ত তহবিল থেকে মঞ্জুরিকৃত অর্থের অধিক অর্থ প্রদান ও নির্দিষ্টকরণের কর্তৃত্ব প্রদানের জন্য গতকাল সংসদে ‘নির্দিষ্টকরণ (সম্পূরক) বিল-২০১৬’ উত্থাপন করেন। এ সময় অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন ডেপুটি স্পিকার মো. ফজলে রাব্বি মিয়া। সম্পূরক বাজেটের ওপর বিরোধী দল জাতীয় পার্টির ও স্বতন্ত্র সংসদ সদস্যরা ১৯০টি ছাঁটাই প্রস্তাব দেন। তবে সেগুলো কণ্ঠভোটে বাতিল হয়। এর আগে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের বরাদ্দ ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগ, প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, শিক্ষা মন্ত্রণালয়, স্থানীয় সরকার বিভাগ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয়ের ওপর আনীত ছাঁটাই প্রস্তাবগুলো আলোচনা হয়। সম্পূরক আর্থিক বিবৃতির ব্যাখ্যামূলক স্মারকে বলা হয়েছে, ২০১৫-১৬ অর্থবছরের মূল বাজেটে ৫৯টি মন্ত্রণালয়/বিভাগের অনুকূলে নিট ২ লাখ ৯৫ হাজার ১০০ কোটি টাকা বরাদ্দ ছিল। সংশোধিত বাজেটে ৩৮টি মন্ত্রণালয়/বিভাগের বরাদ্দ ১৯ হাজার ৮০৩ দশমিক ৬৩ কোটি টাকা বেড়েছে এবং ২১টি মন্ত্রণালয়/বিভাগের বরাদ্দ ৪৭ হাজার ১২০ দশমিক ১১ কোটি টাকা কমেছে।

সংশোধিত বাজেটের আকার কমে আসার কারণ সম্পর্কে বলা হয়েছে, ৩১টি মন্ত্রণালয় ও বিভাগের বরাদ্দ বেড়েছে। আর ২৮টি মন্ত্রণালয় ও বিভাগের বরাদ্দ কমেছে। বছর শেষ হওয়ার আগে বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও বিভাগের অনুকূলে দেওয়া বরাদ্দ কাটছাঁট করার ফলে ২০১৫-১৬ অর্থবছরের মূল বাজেটের আকার কমে দাঁড়িয়েছে ২ লাখ ৬৪ হাজার ৫৬৫ কোটি টাকা। মূল বাজেটটি ছিল ২ লাখ ৯৫ হাজার ১০০ কোটি টাকার। সংশোধিত বাজেটে এটির আকার কমেছে ৩০ হাজার ৫৩৫ কোটি টাকা। সংসদ সম্পূরক বাজেটের আওতায় ৩১টি মন্ত্রণালয় ও বিভাগের বিপরীতে ১৯ হাজার ৮০৩ কোটি ৬২ ল?াখ ৮৮ হাজার টাকার বরাদ্দ অনুমোদন করা হয়। এর মধ্যে সর্বাধিক ৩ হাজার ৫৭৬ কোটি ২৭ লাখ ৬৩ হাজার টাকা স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অধীনে বরাদ্দ অনুমোদন করা হয়েছে। সবচেয়ে কম ৪৭ ল?াখ ৯১ হাজার টাকা বরাদ্দ অনুমোদন পেয়েছে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়। প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের জন্য দুই হাজার ৩০৯ কোটি ২৮ লাখ টাকা বেশি বরাদ্দের দাবি করেন সংসদ কাজে মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রী আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। গতকাল সকালে জাতীয় সংসদে ২০১৫-১৬ অর্থবছরের সম্পূরক বাজেটের ওপর আলোচনায় অংশ নিয়ে বিরোধী দলীয় বেশ কয়েকজন সংসদ সদস্য বলেছেন, মন্ত্রণালয়গুলো কেন অতিরিক্ত টাকা ব্যয় করেছে, সেসব ব্যয়ের স্বচ্ছতার বিষয়ে সংসদে বিস্তারিত ব্যাখ্যা দিতে হবে। কারণ বিরোধী দলের সংসদ সদস্যরা নির্বাচনী এলাকায় জনগণের প্রতিশ্রুতি পূরণে অনেক দাবি সংবলিত আবেদন করেও কোনো বরাদ্দ পাননি।




up-arrow