Bangladesh Pratidin

ঢাকা, মঙ্গলবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : রবিবার, ১২ জুন, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১১ জুন, ২০১৬ ২২:৩৩
সন্তান হত্যার দায় স্বীকার মায়ের
নিজস্ব প্রতিবেদক, খুলনা

মায়ের অনৈতিক কর্মকাণ্ড দেখে ফেলায় হত্যা করা হয় নয় বছরের শিশু হাশমিকে। হত্যার পর লাশ গুম করার জন্য বস্তায় ভরে তা নগরীর আড়ংঘাটা কার্তিককুল গ্রামের একটি ডোবায় ফেলে দেওয়া হয়। ৬ জুন গভীর রাতে এ ঘটনা ঘটে। গতকাল বিকালে খুলনা মহানগর হাকিম ফারুক ইকবালের কাছে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দিতে শিশুটির মা সোনিয়া এ হত্যাকাণ্ডের দায় স্বীকার করেন। এ সময় হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত আরও তিনজনের নাম প্রকাশ করেন তিনি। খুলনার আড়ংঘাটা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নাছিম খান পিপিএম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। প্রসঙ্গত, হত্যাকাণ্ডের তিন দিন পর পুলিশ ৯ জুন সকালে শিশুটির লাশ উদ্ধার করে। আড়ংঘাটা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জানান, হত্যাকাণ্ডের পর থানায় মামলা হয়। কিন্তু শিশুটির মায়ের কথাবার্তা সন্দেহজনক হওয়ায় তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার কথা তিনি স্বীকার করেন। পুলিশ জানায়, কয়েক দিন আগে স্থানীয় যুবক রসুল ও নুরনবীর মধ্যস্থতায় সোনিয়া তার ছেলে হাশমিকে বাবার কাছ থেকে নগরীর মানিকতলায় নিজের বাড়িতে নিয়ে আসেন। কিন্তু এখানে আসার পর ছেলে হাশমি মায়ের অনৈতিক কর্মকাণ্ড দেখে ফেলে। এ ঘটনা সে তার বাবাকে বলে দেবে জানালে সোনিয়া ছেলে হাশমিকে খুন করার জন্য রসুল ও নুরনবীকে পরামর্শ দেন। এসব ঘটনা হত্যাকাণ্ডের পরদিন আসাদ নামে একজনকে সোনিয়া জানান বলে পুলিশের কাছে স্বীকার করেছেন। পুলিশ আসাদকে গ্রেফতার করেছে। বাকি দুজনকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow