Bangladesh Pratidin

ঢাকা, সোমবার, ৫ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : সোমবার, ২০ জুন, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ২০ জুন, ২০১৬ ০২:৩১
অর্থ ব্যয়ে স্বচ্ছতা নিশ্চিত করাই কঠিন হয়ে পড়েছে
বিএইচআরএফ ও বিএমএর মিট দ্য প্রেসে স্বাস্থ্যমন্ত্রী
নিজস্ব প্রতিবেদক

স্বাস্থ্য খাতে বরাদ্দকৃত অর্থ ব্যয়ে স্বচ্ছতা নিশ্চিত করাই কঠিন হয়ে পড়েছে। অনেক ক্ষেত্রেই অস্বচ্ছতা ধরা হয়, শাস্তি দেওয়া হয়, কিন্তু এর পরও কোনো না কোনো ফাঁকফোকর দিয়ে সংশ্লিষ্টরা পার পেয়ে যায়। স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম গতকাল স্বাস্থ্য খাতের বাজেট বরাদ্দ নিয়ে বাংলাদেশ হেলথ রিপোর্টার্স ফোরাম (বিএইচআরএফ) ও বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের (বিএমএ) যৌথ আয়োজনে ‘মিট দ্য প্রেস’ অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন। স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘বাজেট ব্যবস্থাপনার ক্ষেত্রে স্বাস্থ্যকেন্দ্রগুলোয় যারা নেতৃত্ব দেন, তাদের ওপর অনেক দায়িত্ব। তারা সঠিকভাবে দায়িত্ব পালন করলে বাজেটের সীমাবদ্ধতার মধ্যেও মানুষের ভালো স্বাস্থ্যসেবা দেওয়া যায়। এর অনেক প্রমাণও আমি দেখেছি।’

তিনি বলেন, ‘প্রয়োজনের তুলনায় আমাদের দেশে স্বাস্থ্যবাজেট তুলনামূলক কমছেই। এবার টাকার অঙ্ক কিছুটা বাড়লেও তা আরও বাড়ানো উচিত ছিল।’

বাংলাদেশ হেলথ রিপোর্টার্স ফোরামের সভাপতি তৌফিক মারুফের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. দীন মো. নুরুল হক, বিএমএ সভাপতি অধ্যাপক ডা. মাহামুদ হাসান, মহাসচিব অধ্যাপক ডা. ইকবাল আর্সলান, বাংলাদেশ হেলথ রিপোর্টার্স ফোরামের সিনিয়র নির্বাহী সদস্য শিশির মোড়ল ও সহ-সভাপতি নুরুল ইসলাম হাসিব। মিট দ্য প্রেসে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বর্তমান সরকারের সময়ে স্বাস্থ্য খাতে নানা অর্জন ও অগ্রগতির তথ্য তুলে ধরে বলেন, বাকেজ বাড়ানো গেলে স্বাস্থ্য খাতের এই এগিয়ে চলা আরও গতিশীল হবে। তবে তিনি এ সময় বিভিন্ন উন্নয়ন ক্ষেত্রে দাতা সংস্থাগুলোর পিছুটানের প্রসঙ্গ তুলে বলেন, ‘অনেক কাজেই দাতা সংস্থার নানা ধীরগতি প্রক্রিয়ার কারণে দ্রুত শুরু বা শেষ করা যায় না।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow