Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৩০ মার্চ, ২০১৭

প্রকাশ : মঙ্গলবার, ২৮ জুন, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ২৮ জুন, ২০১৬ ০৩:৩৫
আর্থিক খাতে শৃঙ্খলা ফেরানোর দাবি
নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রস্তাবিত বাজেটের ওপর সাধারণ আলোচনায় অংশ নিয়ে সরকার ও বিরোধী দলের এমপিরা উন্নয়নের বর্তমান ধারা অব্যাহত রাখতে আর্থিক খাতে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে সরকারকে তাগিদ দিয়েছেন। এ ছাড়া শিল্প খাতের উন্নয়নে পোশাক শিল্পে আরোপিত উেস কর প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছেন। তারা বলেন, দেশ যখন অপ্রতিরোধ্য গতিতে এগিয়ে চলেছে, তখন বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়া ইফতারের সময় আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে মিথ্যাচার করছেন। কিছু সুশীল সমাজ আছে যারা সম্পূর্ণ অসত্য তথ্য দিয়ে জনগণকে বিভ্রান্ত করে দেশের উন্নয়নকে বাধাগ্রস্ত করার চেষ্টা করছেন। তবে দেশবিরোধী যতই ষড়যন্ত্র-চক্রান্ত করা হোক না কেন, দেশের জনগণ তা বাস্তবায়িত হতে দেবে না। স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী ও পরে ডেপুটি স্পিকার মো. ফজলে রাব্বি মিয়ার সভাপতিত্বে গতকাল বাজেট আলোচনায় সংসদ সদস্যরা অংশ নেন। আলোচনার সময় চর উন্নয়নে বরাদ্দকৃত অর্থ খরচ হয় না বলে উল্লেখ করেন ডা. দীপু মনি। তার এ বক্তব্যের সঙ্গে সহমত পোশন করে ডেপুটি স্পিকার সংসদে উপস্থিত সংসদ নেতা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। বিরোধী দলের চিফ হুইপ তাজুল ইসলাম     চৌধুরী অর্থমন্ত্রীর সমালোচনা করে বলেন, অর্থমন্ত্রী শেয়ারবাজারকে ফটকাবাজি বলেন। লুটপাটের ব্যাপারে তদন্ত হয়, কিন্তু কোনো বিচার হয় না। সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেন, দেশে কিছু সুশীল সমাজ আছে যারা সম্পূর্ণ অসত্য তথ্য দিয়ে জনগণকে বিভ্রান্ত করে দেশের উন্নয়নকে বাধাগ্রস্ত করার চেষ্টা করছেন। তারা জঙ্গিবাদ দমন, রামপালে বিদ্যুৎ উৎপাদন, যুদ্ধাপরাধীদের বিচারেও বাধা দেন। সাগুফতা ইয়াসমিন এমিলি পদ্মা সেতুর নাম ‘শেখ হাসিনা’ সেতু, নির্মাণাধীন সেতুর পাশের বিশাল চরে অবকাঠামো নির্মাণ এবং বেদে সম্প্রদায়ের জন্য বিশেষ বরাদ্দের দাবি জানান।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow