Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বুধবার, ১৮ অক্টোবর, ২০১৭

ঢাকা, বুধবার, ১৮ অক্টোবর, ২০১৭
প্রকাশ : শুক্রবার, ১ জুলাই, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১ জুলাই, ২০১৬ ০৩:১৯
নতুন টাকার চাহিদা বেশি
শেষ দিনে ব্যাংকে উপচে পড়া ভিড়
নিজস্ব প্রতিবেদক

ঈদুল ফিতরকে কেন্দ্র করে সরকারি অফিসের শেষ দিনে ঢাকাসহ সারা দেশে ব্যাংকগুলোতে টাকা তোলার হিড়িক পড়ে যায়। সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন ব্যাংকে লাইনে দাঁড়িয়ে গ্রাহকরা টাকা তুলেন।

উপচে পড়া ভিড়ের কারণে বেশ কয়েকটি ব্যাংকে টাকা সংকটও দেখা দেয়। এ নিয়ে ব্যাংকের কর্মকর্তাদের সঙ্গে গ্রাহকদের বাদানুবাদও লক্ষ্য করা যায়। দুপুরের দিকে অবশ্য ব্যাংকগুলোতে টাকা পাওয়া যায়। আবার ব্যাংকগুলোর বুথেও টাকার সংকট দেখা দেয়। দীর্ঘক্ষণ সার্ভারও কাজ করেনি এমন অভিযোগও আসে। এ নিয়ে গ্রাহকদের মধ্যেও ক্ষোভ দেখা যায়। আবার অনেকে ঈদ সেলামির জন্য নতুন টাকার জন্যও অপেক্ষা করেন। পাঁচশ, একশ, পঞ্চাশ, বিশ ও দশ টাকার চাহিদাও ছিল বেশি। এদিকে টানা ৯ দিন সরকারি ছুটির কারণে ব্যাংক বন্ধ থাকায় দুশ্চিন্তায় পড়েছেন ব্যবসায়ীরা। ঈদের আগের দিন চাঁদ রাত  পর্যন্ত বেচাকেনার টাকা সুরক্ষিত রাখা নিয়ে চিন্তিত তারা। ঈদের আগে এক দিনের জন্য হলেও ব্যাংক খোলা রাখার দাবি তাদের। এতে বিক্রীত টাকা ব্যাংকে রেখে নিশ্চিন্ত থাকতে চান ব্যবসায়ীরা। বাংলাদেশ ব্যাংক বরিশাল শাখার মহাব্যবস্থাপক নূরুল আলম কাজী বাংলাদেশ প্রতিদিনকে জানান, ঈদের আগে সরকারি ব্যাংক খোলার শেষ দিন। তবে আগামী ২, ৩ ও ৪ জুলাই বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর প্রধান কার্যালয়কে তাদের নিজস্ব বিবেচনায় শিল্প, গার্মেন্ট, শপিং মল এলাকার শাখাসহ ব্যস্ততম শাখাগুলো খোলা রাখার নির্দেশ দিয়েছে ব্যাংলাদেশ ব্যাংক।

ব্যাংকের নিরাপত্তা বাড়ানোর নির্দেশ : ঈদুল ফিতর সামনে রেখে টানা নয় দিনের ছুটিতে ব্যাংকের নিরাপত্তা বাড়ানোর নির্দেশ দিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। গতকাল দেশের সব বাণিজ্যিক ব্যাংকের প্রধান নির্বাহীকে বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে এ নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। নির্দেশনায় বলা হয়েছে, সাম্প্রতিক সময়ে সংঘটিত কিছু চুরি, ডাকাতিসহ অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ও সাইবার অপরাধের পরিপ্রেক্ষিতে, ব্যাংক-কোম্পানিগুলোর ব্যবসা কেন্দ্রের নিরাপত্তা আরও জোরদার করা প্রয়োজন। এ পরিপ্রেক্ষিতে ছুটির দিনে ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়, শাখা অফিসসহ সব ব্যবসা কেন্দ্রের সাইবার নিরাপত্তাসহ সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করার নির্দেশনা দেওয়া হচ্ছে। প্রয়োজনে ব্যাংক কর্মকর্তাদের দিয়ে পর্যায়ক্রমে তদারকির ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে বলেও নির্দেশনায় বলা হয়েছে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow