Bangladesh Pratidin

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৪ জানুয়ারি, ২০১৭

প্রকাশ : বুধবার, ২০ জুলাই, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১৯ জুলাই, ২০১৬ ২৩:১৬
মুক্তি পেলেন শতবর্ষী ওয়াহিদুন নেছা
গাজীপুর প্রতিনিধি
মুক্তি পেলেন শতবর্ষী ওয়াহিদুন নেছা

গাজীপুরে কাশিমপুর মহিলা কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে গতকাল শতবর্ষী এক নারী বন্দী মুক্তি পেয়েছেন। তার নাম ওয়াহিদুন নেছা। তিনি চাঁদপুরের মতলব উপজেলার জোড়াখালি গ্রামের চাঞ্চল্যকর একই পরিবারের সাতজনকে হত্যার মূল হোতা সালামত প্রধানিয়ার স্ত্রী। সামান্য কয়েক শতাংশ ভিটেবাড়ি আত্মসাতের জন্য এ হত্যাযজ্ঞ চালিয়েছিলেন সালামত প্রধানিয়া। কাশিমপুর কেন্দ্রীয় মহিলা কারাগারের ভারপ্রাপ্ত সিনিয়র জেল সুপার সুব্রত কুমার বালা জানান, ২৬ জুন প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা গাজীপুরের কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার পরিদর্শন করেন। এ সময় যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত শতবর্ষী ন্যুব্জদেহী ওয়াহিদুন নেছা প্রধান বিচারপতির সঙ্গে কথা বলেন এবং নিজের মুক্তির আবেদন জানান। তার কথা শুনে ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেন প্রধান বিচারপতি। এ ছাড়া যেসব বন্দীর আপিল আদালতে অপেক্ষমাণ আছে এ রকম একটি তালিকা প্রধান বিচারপতিকে দেওয়া হয়। পরে রিভিউ পিটিশন করা হলে হত্যাযজ্ঞে ওয়াহিদুন নেছার সম্পৃক্ততা প্রমাণিত না হওয়ায় সোমবার প্রধান বিচারপতি তাকে মুক্তির আদেশ দেন।

জেল সুপার জানান, এ-সংক্রান্ত আদেশের কপি সোমবার রাতে কারাগারে পৌঁছায়। উল্লেখ্য চাঞ্চল্যকর সাত খুনের মামলায় ওই নারীকে ২০০০ সালের ১৪ মে চাঁদপুরের আদালত যাবজ্জীবন সাজা দেন। তাকে ২০০৭ সালের ২৩ নভেম্বর কাশিমপুর মহিলা কেন্দ্রীয় কারাগারে আনা হয়। ইতিমধ্যে তিনি রেয়াতসহ ২০ বছরের বেশি সাজা ভোগ করেছেন। বয়স ও আচার-আচরণ এবং মানবিক বিবেচনায় তাকে ২৬ জুন প্রধান বিচারপতির সঙ্গে সাক্ষাতের ব্যবস্থা করে দেওয়া হয়েছিল।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow