Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৭

ঢাকা, রবিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৭
প্রকাশ : বুধবার, ২০ জুলাই, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১৯ জুলাই, ২০১৬ ২৩:১৭
চিংড়ি রপ্তানি কমেছে ৩৭৮ কোটি টাকার
নিজস্ব প্রতিবেদক, খুলনা

অপদ্রব্য পুশ, উৎপাদনে ঘাটতি ও বিশ্ববাজারে দরপতনের কারণে গত এক বছরে খুলনা অঞ্চল থেকে প্রায় ৩৭৮ কোটি টাকার চিংড়ি রপ্তানি কম হয়েছে।

জানা যায়, ২০১৪-১৫ অর্থবছরে গলদা ও বাগদা চিংড়ি রপ্তানি হয় ২৯ হাজার ৮৮৫ মেট্রিক টন।

যার বাজার মূল্য ছিল ২ হাজার ৫৯৭ কোটি টাকা। গত ২০১৫-১৬ অর্থবছরে রপ্তানি কমে হয়েছে ২৫ হাজার ৮ মেট্রিক টন। যার বাজার মূল্য প্রায় ২ হাজার ২১৮ কোটি টাকা। এই সময়ের মধ্যে সাদা মাছের রপ্তানি ৫৩৬ মেট্রিক টন বাড়লেও সামগ্রিক রপ্তানি কমেছে ৩৭৮ কোটি টাকার। গতকাল খুলনা জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে জাতীয় মত্স্য সপ্তাহ-২০১৬ উপলক্ষে মতবিনিময় সভায় এসব তথ্য জানা গেছে। খুলনা জেলা মত্স্য অধিদফতরের তথ্য অনুযায়ী, গত এক বছরে শুধু বাগদা চিংড়ির রপ্তানি কমেছে ৫ হাজার ২৩৪ মেট্রিক টন। যার বাজার মূল্য ৫১৭ কোটি টাকা। এ ছাড়া গত অর্থবছরের মধ্যে সাদা মাছ ক্যাট ফিশ, বাইম ও হিমায়িত সামুদ্রিক ভেটকি মাছের রপ্তানি একেবারে বন্ধ ছিল। তবে নতুন করে কুঁচিয়া ও ফিশ স্কেল মাছের রপ্তানি শুরু হয়েছে। গলদা চিংড়ি মাছের রপ্তানি গত অর্থবছরের থেকে ৮৪২ মেট্রিক টন বেড়েছে। যার বাজার মূল্য প্রায় ১৪৭ কোটি টাকা।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow